আজ ২৯শে চৈত্র, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১২ই এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

অর্থের অভাবে ১৫ দিনের নবজাতককে হত্যা করলো বাবা, এলাকায় শোকের মাতম

প্রথমবার্তা প্রতিবেদক:সাতক্ষীরার হাওয়ালখালি গ্রামে মায়ের পাশ থেকে নিখোঁজ হওয়া শিশু সোহানের মরদেহ ৩০ ঘণ্টা পর সেফটিক ট্যাংক থেকে উদ্ধার করেছে পুলিশ।

শুক্রবার রাত ১টার দিকে বাড়ির পাশের সেফটিক ট্যাংক থেকে পুলিশ মরদেহটি উদ্ধার হয়। এ সময় পুলিশ নিহত শিশুর বাবা সোহাগ হোসেনকে প্রথমে ও সকালে মা ফতেমাকে গ্রেপ্তার করে। মাত্র ১৫ দিনের নবজাতক শিশুকে নৃশংসভাবে হত্যার ঘটনায় এলাকায় শোকের মাতম চলছে।

সাতক্ষীরা সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মীর্জা সালাউদ্দীন জানান, সোহাগ তার শ্বশুর বাড়ি হাওয়ালখালী গ্রামের নুর ইসলামের বাড়িতে স্ত্রী-সন্তান নিয়ে থাকতেন। বৃহষ্পতিবার দুপুরের দিকে তাদের ১৫ দিন বয়সী সন্তান সোহান ঘুমন্ত মায়ের পাশ থেকে নিখোঁজ হয়েছে বলে প্রচার দেয়। এ ঘটনায় থানায় জিডি হলে পুলিশ অনুসন্ধানে নামে। এক পর্যায়ে শিশুটির পিতা সোহাগ হোসেনকে জিজ্ঞাসাবাদে তিনি শিশুটিকে সেফটিক ট্যাংকে ফেলে দিয়েছেন বলে স্বীকার করেন। তার স্বীকারোক্তিতে পুলিশ মধ্যরাতে শিশুটিকে উদ্ধার ও বাবা-মাকে আটক করে।

শিশুটি জন্ডিস, রিকেট ও নিউমোনিয়া, হার্টের সমস্যাসহ বিভিন্ন রোগে ভুগছিল এবং চিকিৎসার জন্য পর্যাপ্ত অর্থ তাদের ছিলনা, তাই তাকে ফেলে দেয়া হয়েছে বলে দাবি করে শিশুটির পিতা-মাতা। এ ঘটনায় পুলিশ বাদি হয়ে মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে জানান।