আজ ৭ই বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২০শে এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

081940cold weather kk 1

আগামী দুই দিনে তাপমাত্রা আরো বাড়তে পারে

প্রথমবার্তা, প্রতিবেদক: তাপমাত্রা বাড়তে শুরু করায় ধীরে ধীরে কাটছে শীতের তীব্রতা। দেশজুড়ে বিরাজমান শৈত্যপ্রবাহের বিস্তারও কমে আসতে শুরু করেছে। আগামী বৃহস্পতিবার নাগাদ তাপমাত্রা আরো বাড়ার আভাস দিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর।

মঙ্গলবার (২ ফেব্রুয়ারি) রাতে দেওয়া এক পূর্বাভাসে সংস্থাটি এ তথ্য জানিয়েছে।

পূর্বাভাসে বলা হয়েছে— উপ-মহাদেশীয় উচ্চচাপ বলয়ের বর্ধিতাংশ পশ্চিমবঙ্গ ও তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থান করছে। আর মৌসুমের স্বাভাবিক লঘুচাপ অবস্থান করছে দক্ষিণ বঙ্গোপসাগরে।

এই অবস্থায় বুধবার (৩ ফেব্রুয়ারি) অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা আকাশসহ সারাদেশের আবহাওয়া শুষ্ক থাকতে পারে। মধ্যরাত থেকে সকাল পর্যন্ত দেশে নদ-নদী অববাহিকার কোথাও কোথাও মাঝারি থেকে ঘন কুয়াশা এবং অন্যত্র হালকা থেকে মাঝারি ধরনের কুয়াশা পড়তে পারে। তবে ঘন কুয়াশার কারণে কোনো সতর্কতা দেয়নি আবহাওয়া অফিস।

তীব্র শৈত্যপ্রবাহ কমে গিয়ে বর্তমানে মাঝারি ধরণে শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে। এটা আরো উন্নতি হয়ে তাপমাত্রা বাড়তে পারে ১ থেকে ২ ডিগ্রি।

এক্ষেত্রে বলা হয়েছে— বর্তমানে রাজশাহী, রংপুর ও বরিশাল বিভাগসহ টাঙ্গাইল, ফরিদপুর, মাদারীপুর, গোপালগঞ্জ, কিশোরগঞ্জ, ময়মনসিংহ, সন্দ্বীপ, সীতাকুন্ড, রাঙ্গামাটি, কুমিল্লা, ফেনী, হাতিয়া, শ্রীমঙ্গল, সাতক্ষীরা, যশোর ও কুষ্টিয়া অঞ্চল সমূহের উপর দিয়ে মৃদু থেকে মাঝারি ধরনের শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে এবং তা কিছু এলাকায় প্রশমিত হতে পারে।

বুধবার ঢাকায় উত্তর-পশ্চিম/উত্তর দিক থেকে ঢাকায় সর্বোচ্চ বাতাসের গতিবেগ থাকবে ঘণ্টায় ৬ থেকে ১২ কিমি। পরবর্তী ৪৮ ঘণ্টায় দিন ও রাতের তাপমাত্রা আরো বৃদ্ধি পেতে পারে। আর বর্ধিত পাঁচ দিনের আবহাওয়ার অবস্থাও সামান্য পরিবর্তন হতে পারে।

মঙ্গলবার (২ ফেব্রুয়ারি) দেশে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে চুয়াডাঙ্গায় ৬ দশমিক ৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস। আর সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে টেকনাফে ২৮ দশমিক ৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস।