আজ ২৭শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১১ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

154334fakhrul 1

আদালতের ঘাড়ে বন্দুক রেখে সরকার স্বার্থ হাসিল করছে: ফখরুল

প্রথমবার্তা, প্রতিবেদক: আদালতের ঘাড়ে বন্দুক রেখে সরকার তার হীন স্বার্থ হাসিল করছে অভিযোগ করে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, মূলত জনগণকে বন্দি করে রাখার জন্যই আইন-আদালতকে হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করছে নিশিরাতের সরকার।

শুক্রবার (১৫ জুলাই) গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে তিনি এ অভিযোগ করেন।

বিবৃতিতে মির্জা ফখরুল বলেন, অবৈধ সরকারের বানোয়াট ও ভুয়া মামলায় বিএনপি ও অঙ্গ-সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা আদালতে হাজির হলেই তাদের জেলে ঢুকানো হচ্ছে। অথচ সরকারদলীয় লোকজন মানুষ খুন করেও প্রকাশ্যে ঘুরে বেড়াচ্ছে।

বিএনপির মহাসচিব বলেন, বর্তমানে আওয়ামী শাসন আইনের শাসনকে প্রতিস্থাপিত করেছে। আইন, বিচার, প্রশাসন সম্পূর্ণরূপে সরকারের হাতের মুঠোয়। আইনের রাজনৈতিক ব্যবহারের কারণে ন্যায় বিচার বাংলাদেশ থেকে নিরুদ্দেশ হয়ে গেছে। নিষ্ঠুর ফ্যাসিবাদ ভয়ঙ্কর দানবরূপে আত্মপ্রকাশ করেছে। মানুষ আদালত থেকে এখন আর ন্যায় বিচার পায় না। আদালত মানুষের শেষ আশ্রয়স্থল অথচ বিরোধী দলসহ দেশের সাধারণ মানুষ সেখান থেকে কোনো প্রতিকার পায় না।

বগুড়া জেলা বিএনপির আহ্বায়ক কমিটির সদস্য গাবতলী উপজেলা বিএনপির সভাপতি, সাবেক উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও সাবেক পৌর মেয়র মোর্শেদ মিল্টন, উপজেলা পরিষদের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান ও নাড়ুয়ামালা ইউনিয়ন বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মো. ফজলে রাব্বি ফিরোজ এবং গাবতলী পৌর যুবদলের সাবেক আহ্বায়ক ও বারবার নির্বাচিত পৌর কাউন্সিলর মো. হারুন অর রশীদ রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত মামলায় আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হয়ে উচ্চ আদালতে জামিনে থাকা সত্ত্বেও বৃহস্পতিবার (১৪ জুলাই) বগুড়ার দায়রা জজ আদালতে হাজিরা দিতে গেলে আদালত তাদের জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান বিএনপির মহাসচিব।