আজ ৫ই মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৯শে জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

Screenshot 20211127 053505

আপেল প্রতীক সমর্থকের নেতৃত্বে ফুটবল প্রার্থীর ওপর হামলা, আহত ৭

প্রথমবার্তা প্রতিবেদক:ঢাকার দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ শুভাঢ্যা ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ড প্রার্থী হাজি মো. ওহেদুজ্জামানের ফুটবল প্রতীক সমর্থকের ওপর হামলা চালিয়েছেন আলমগীর হোসেনের আপেল প্রতীক সমর্থক শাওন (২৭) গ্রুপ। এ বিষয় দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন হাজি মো. ওহেদুজ্জামান ফুটবল প্রতীক প্রার্থীর ছোট ভাই সাইদুজ্জামান।

 

শুক্রবার (২৬ নভেম্বর) সকালে হাজি মো. ওহেদুজ্জামানের ফুটবল প্রতীক সমর্থক ও প্রার্থী ওহেদুজ্জামান ভোট চেয়ে বাসায় আসার পথে এ হামলা করা হয়। আপেল প্রতীক সমর্থক শুভাঢ্যা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদকের ছেলে শাওনের (২৭) নেতৃত্বে ৪০/৫০ জন লাঠিসোটা হকিস্টিক, দেশীয় ধারাল অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে ইকুরিয়া বেপারী পাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনে এ হামলা চালানো হয়। সেখানে আগে থেকেই ওঁৎ পেতে দাঁড়িয়ে ছিল শাওন। ওহেদুজ্জামান প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনে পৌঁছলেই কিছু না বলেই এলোপাতাড়ি পেটানো ও হামলা চালায় শাওন ও তার দলবল।

এ সময় ফুটবল প্রতীকের সমর্থকরা তাদের দাওয়া দিলে তারা পালিয়ে যায়। প্রতিপক্ষের হামলায় ফুটবল প্রতীকের ৭/৮ জন সমর্থক আহত হন। আহতদের স্থানীয় হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়। আহতরা হলেন- হাজী মো. হায়াতুজ্জামান, বিশাল, ডা. আবদুল্লাহ, হানিফুজ্জামান, মজিবর, রেজয়ানসহ আরো কয়েকজন।

এ বিষয় ৮নং ওয়ার্ড ইউপি সদস্য প্রার্থী হাজি মো. ওহেদুজ্জামান বলেন, আমি ও আমার সমর্থকরা ভোটারদের নিকট ভোট চেয়ে শোডাউন দিয়ে ফেরার পথে আমাকে হত্যার উদ্দেশ্যে আমার ও সমর্থকদের ওপর হামলা চালায়। আপেল প্রতীকের সমর্থক শাওন গ্রুপের সদস্যরা। আমি একটু পেছনে থাকার কারণে আমি অল্পের জন্য বেঁচে যাই। জানতে পেরেছি শাওন, শুভাঢ্যা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আওলাদ হোসেন শুক্কুরের ছেলে।

তিনি বলেন, নির্বাচনের আর মাত্র দুদিন বাকি আমার নির্বাচন বানচাল করার জন্য এ হামলা চালানো হয়েছে। এ হামলার বিষয় আমার ছোট ভাই একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন আমি এর সুষ্ঠু বিচার চাই। আর দোষীদের আইনের আওতায় এনে শাস্তি দাবি করছি।

এ হামলার বিষয়ে দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ আবুল কালাম আজাদ জানান, হামলার বিষয় আমি শোনার সঙ্গে সঙ্গে ফোর্স পাঠিয়েছি। প্রার্থীর ভাই সাইদুজ্জামান বাদী হয়ে একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন। যারা এ হামলা করেছে তাদের আইনের আওতায় এনে তদন্ত সাপেক্ষে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।