আজ ২রা বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৫ই এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

105227shakib al hasan kk

‘আমার মতো ভুল যেনো কেউ না করে’

প্রথমবার্তা, প্রতিবেদক: নিউইয়র্কে এমন একটি সময় তিনি সুধী সমাবেশে যোগ দিলেন যখন মাত্র কয়েকঘন্টা পর তার উপর থেকে এক বছরের নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ উঠে যাচ্ছে। তেমনি একটি সময়ে বিশ্ব ক্রিকেটের বরপুত্র সাকিব আল হাসানকে বরণ করে নিলেন, শুভকামনা জানালেন নিউইয়র্ক প্রবাসী বাংলাদেশিরা।

 

কভিড- ১৯ এর কারণে অনুষ্ঠান করার ক্ষেত্রে অনেক বিধিনিষেধ রয়েছে। সেই সাথে সবার জন্যেই এখনো করোনা ভাইরাস স্বাস্থ্যঝুঁকি। ফলে সামাজিক দূরত্বসহ নানা নিয়ম মেনে সাকিবের জন্যে শুভ কামনা জানানোর অনুষ্ঠানটির আয়োজন করে ‘শো টাইম মিউজিক’।

 

নিউইয়র্কের স্থানীয় সময় মঙ্গলবার (২৭ অক্টোবর) রাতে কুইন্স প্যালেস মিলনায়তনে এই অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন শো টাইম মিউজিকের কর্ণধার আলমগীর খান আলম। সাংবাদিক ও লেখক শামীম আল আমিনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে নিউইয়র্ক প্রবাসীরা প্রশ্ন করেন সাকিবকে।

 

বাংলাদেশ ক্রিকেটের গর্ব সাকিব আল হাসান তার বক্তব্যের শুরুতেই করোনা মহামারিতে গোটা বিশ্বজুড়ে যারা মারা গেছেন, তাদের প্রতি শ্রদ্ধা জানান। স্মরণ করিয়ে দেন, করোনা এখনো মারাত্মক ঝুঁকি। সবাইকে সতর্ক থাকার কথা বলেন তিনি।

 

এক বছর পর ফিরছেন, কেমন লাগছে? হেসে সংক্ষেপে তিনি উত্তর দেন, ভালো লাগছে। দোয়া করবেন, যেনো দেশের জন্যে ভালো খেলতে পারি। চেষ্টা সবসময়ই থাকবে। প্রবাসীরা শুভ কামনা জানিয়ে বলেন, সাকিব ফিরবে বীরের বেশে। কিন্তু গত একটি বছর যে কারণে জীবন থেকে চলে গেলো, সেটা নিয়ে কি সাকিবের কোন আফসোস আছে? এমন প্রশ্নের জবাবে সাকিব বলেন, ‘আমার মতো ভুল যেনো কেউ না করে’।

 

২৮ অক্টোবর মধ্যরাতের পর সাকিবের উপর থেকে ক্রিকেটের নিষেধাজ্ঞা উঠে যাচ্ছে। একটি বছর সাকিবের কিভাবে কেটেছে, এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘পরিবারকে সময় দিয়েছি। আপনারা জানেন প্রথম সন্তানকে সময় দিতে পারিনি। দ্বিতীয় সন্তান সেটা পেয়েছে। বেবি সিটিং করেছি। আর অবশ্যই ক্রিকেটকে মিস করেছি।’

 

সাকিব জানান, ৪ নভেম্বর দেশে ফিরছেন তিনি। ক্রিকেট বোর্ডের সাথে তার সার্বক্ষণিক যোগাযোগ রয়েছে। নিয়মতান্ত্রিক উপায়েই দ্রুত ক্রিকেটে ফিরবেন তিনি। একই সাথে তিনি বলেন, টি টোয়েন্টি বিশ্বকাপসহ সামনের দিনগুলোতে বাংলাদেশ বিশ্ব ক্রিকেটে ভালো করবে বলেই তার বিশ্বাস।

 

করোনা মহামারিতে গোটা দুনিয়া বদলে গেছে। ক্রিকেটেও তো প্রভাব পড়বে? এমন প্রশ্নের উত্তর দিতে গিয়ে সাকিব আল হাসান বলেন, ‘একটি দরজা বন্ধ হয়ে গেলে, আরো দরজা খুলে যায়। নিশ্চয়ই উপায় বের হবে।’ ভবিষ্যত নিয়ে আশাবাদের কথাই শোনালেন সাকিব আল হাসান।