আজ ৮ই বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২১শে এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

Screenshot 2020 1028 095456

আর্মেনিয়ার প্রতিরক্ষামন্ত্রীর গাড়িতে গোলাবর্ষণ করল আজারবাইজান

প্রথমবার্তা, প্রতিবেদক: তিন দশকজুড়ে থেমে থেমে সংঘাত হচ্ছে আর্মেনিয়ান ও আজারবাইজানের মধ্যে । এ বছরের জুলাইয়ে নাগোরনো-কারাবাখ থেকে মাত্র এক শ কিলোমিটার দূরে আজারবাইজানের টভুজ শহরে আবার লড়াইয়ের সূত্রপাত হয়।

 

এদিকে, অস্বীকৃত নাগোরনো-কারাবাখ অঞ্চলের প্রতিরক্ষামন্ত্রী জালাল হারুতুনিয়ানকে গাড়িসহ উড়িয়ে দেয়ার দাবি করেছে আজারবাইজানের সেনাবাহিনী। তারা এমন দাবির স্বপক্ষে একটি ভিডিও ছেড়েছে।

 

মঙ্গলবার (২৭ অক্টোবর ) আজেরি সংবাদ মাধ্যম আজভিশনে ভিডিওটি প্রকাশ করা হয়। তবে আর্মেনীয় সংবাদমাধ্যমে বলা হচ্ছে ওই জেনারেল সামান্য আহত হয়েছেন। তার মৃত্যুর বিষয়টি সঠিক না।

 

আজেরি সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত ভিডিওতে দেখা যায়, সামরিক বহরে থাকা একটি গাড়িতে গোলাবর্ষণ করা হয়। এতে গাড়িটিতে আগুন লেগে ধোয়ায় আচ্ছন্ন হয়ে যায়। তবে উদ্ধারের জন্য সেনা সদস্য এগিয়ে গেলেও আগুনের কারণে উদ্ধার সম্ভব হয়নি। তবে এই তথ্যটি যাচাই করা সম্ভব হয়নি।

 

জালাল আনাতোলি হারুতুনিয়ান অস্বীকৃত প্রজাতন্ত্র আর্টসাখের লেফট্যানেন্ট জেনারেল। বর্তমানে তিনি ডিফেন্স আর্মির কমান্ডার হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। একইসঙ্গে দেশটির প্রতিরক্ষামন্ত্রী হিসেবে কাজ করছেন।

 

এদিকে অস্বীকৃত আর্টসাখের প্রেসিডেন্টের মুখপাত্র ভাহরাম পোগোসায়ানের ফেসবুক পোস্টকে উদ্ধৃতি করে আর্মেনীয় সংবাদমাধ্যম পাবলিক রেডিও অব আর্মেনিয়া বলছে, জালাল হারুতুনিয়ান আহত হয়েছেন। তবে তিনি এখন বিপদমুক্ত। তার জীবন ঝুঁকিতে নেই।

 

ওই মুখপাত্র বলেন, তিনি সৌভাগ্যক্রমে গুরুতর আহত হননি এবং তিনি খুব শ্রীগ্রই সেনাবাহিনীতে যোগ দেবেন।সংবাদমাধ্যমটিতে বলা হয়, আজারবাইজানের গণমাধ্যমে জালাল হারুতউনইয়ানকে হত্যার তথ্য প্রকাশের পর তিনি এমন মন্তব্য করেন।

 

অন্যদিকে, আজারবাইজানের সংবাদমাধ্যমে দাবি করা হয়েছে, অস্বীকৃত বিচ্ছিন্নতাবাদী সরকার যতটা সম্ভব জালাল হারুতুনিয়ানের মৃত্যুকে আড়াল করার চেষ্টা করে।যুদ্ধবিরতির জন্য রাশিয়া মধ্যস্থতা করলেও ২৭ সেপ্টেম্বর লড়াই আবার শুরু হয়। তখন থেকে আর থামেনি।