আজ ১৩ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৮শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

123344Untitled 1 1

টিকাদান চলছে শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ইনস্টিটিউটেও

প্রথমবার্তা, প্রতিবেদক: রাজধানীর শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটেও চলছে করোনার টিকাদান কর্মসূচি। আজ রবিবার (৭ ফেব্রুয়ারি) সকাল ১০টায় শুরু হয় এ টিকাদান কর্মসূচি।

কর্মসূচির প্রথম ধাপেই টিকা নিয়েছেন মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম। এছাড়া টিকা নিয়েছেন অর্থ বিভাগের জ্যেষ্ঠ সচিব আব্দুর রউফ তালুকদার ও স্থানীয় সরকার বিভাগের সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ, সাবেক প্রধান বিচারপতি এ বি এম খায়রুল হক, ডিএমপির সাবেক কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া প্রমুখ।

শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটের পরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল কালাম বলেন, আমাদের সব প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। আজ রবিবার ৮০ জনকে টিকা দেওয়া হবে।

জাতীয় পর্যায়ে টিকা প্রদানের প্রথম দিনে রাজধানী ঢাকায় ৫০টি হাসপাতাল ও সারাদেশে ৯৫৫টি হাসপাতালকে প্রস্তুত করা হয়েছে। এসব টিকা কেন্দ্রে বিভিন্ন জেলার সংসদ সদস্য, রাজনীতিবিদসহ জনপ্রতিনিধিরা টিকা নেবেন। তাঁরা এই টিকা কার্যক্রমকে চালিয়ে নেওয়ার জন্য এবং অন্যদের উদ্বুদ্ধ করার জন্য টিকা নেবেন।

টিকা গ্রহণ করে খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম সাংবাদিকদের বলেন, টিকা নিতে আমার কোনো ভয় নেই। আমার তিন বন্ধু বিদেশে থাকেন, তাঁরা এব্যাপারে এক্সপার্ট। আমাকে অভয় দিয়েছেন তাঁরা। তিনি বলেন, ‘যাদের সম্ভব টিকা নিয়ে নেওয়া উচিত। দেশের ৭০ শতাংশ লোক টিকা নিলে করোনাভাইরাস ছড়াবে না।

সাবেক প্রধান বিচারপতি এ বি এম খায়রুল হক টিকা নেওয়ার পর বলেন, ‘আমি সবাইকে আহ্বান জানাচ্ছি টিকা গ্রহণের জন্য। টিকা না দিলে নিজের ক্ষতি, দেশের ক্ষতি।’

ডিএমপির সাবেক কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া বলেন, অনেক দেশ ভ্যাকসিন পায়নি, ‘আমরা অতি দ্রুত সংগ্রহ করেছি। এর জন্য প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ। তিনি বলেন, টিকা নেওয়ার পর আমি ভালো বোধ করছি। আমার কোনো সমস্যা হয়নি। আমি চাই সবাই টিকা নিক এবং স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলুক।’