আজ ১২ই ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৫শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

mass COVID 19 vaccination

টিকা নেওয়ার কত দিন পর সুরক্ষা তৈরি হয়?

প্রথমবার্তা প্রতিবেদকঃ করোনাভাইরাস (কভিড-১৯) মহামারী ঠেকাতে বিশ্বজুড়ে চলছে টিকা দেওয়ার তোড়জোড়। এরই মধ্যে টিকা নেওয়ার পরও করোনায় আক্রান্ত হওয়ার খবর মিলেছে। এখন প্রশ্ন- টিকা নেওয়ার ঠিক কত দিন পর সুরক্ষা তৈরি হয়? বিবিসি বলছে, কভিড-১৯ প্রতিরোধী টিকা দেওয়ার ক্ষেত্রে যে দেশগুলো সবচেয়ে বেশি এগিয়ে গেছে তার অন্যতম হচ্ছে ইসরায়েল।

 

দেশটির মোট জনসংখ্যার প্রায় এক-তৃতীয়াংশকেই ইতোমধ্যে অন্তত এক ডোজ টিকা দেওয়া হয়ে গেছে।সারা পৃথিবীর বিজ্ঞানীরা এখন অপেক্ষা করছেন এই দেশটি থেকে কী উপাত্ত পাওয়া যায়। কারণ তাহলেই বোঝা যাবে যে একটা দেশের পুরো জনগোষ্ঠীকে টিকা দেওয়ার পর তা করোনা দমনে কতটা কার্যকর হলো।দেখা গেছে, টিকা দেওয়ার পরও হাজার হাজার লোক করোনাভাইরাস পজিটিভ হয়েছেন বলে টেস্টে দেখা গেছে।

 

ইসরায়েলের কভিড মোকাবিলার কর্মসূচির সমন্বয়কারী অধ্যাপক ন্যাশম্যান এ্যাশ বলেছেন, ফাইজারের টিকার একটি মাত্র ডোজ হয়তো ততটা কার্যকর নয়, যতটা আগে ভাবা হয়েছিল।তিনি বলেন, ‘আমরা করোনাভাইরাসে গুরুতর অসুস্থ হওয়া লোকের সংখ্যা এখনো কমে আসতে দেখছি না।’তার এ কথার পর সৃষ্টি হয়েছে উদ্বেগ।

 

কিন্তু এ উদ্বেগ কি একটু বেশি আগেভাগে প্রকাশ করা হয়েছে?ইসরায়েলের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় অধ্যাপক এ্যাশের বক্তব্যকে ‘নির্ভুল নয়’ বলে আখ্যায়িত করে বলেছে, টিকার কী প্রভাব পড়লো তার পূর্ণ রূপ শিগগিরই দেখা যাবে।ইমিউনিটি তৈরি হতে দু-তিন সপ্তাহ লাগে টিকা দেওয়ার পর মানবদেহ করোনাভাইরাসের জেনেটিক উপাদানগুলো চিনে নিতে এবং অ্যান্টিবডি ও টি-সেল তৈরি করতে বেশ খানিকটা সময় নেয়।

 

তার পরই এগুলো ভাইরাসের দেহকোষে অনুপ্রবেশ ঠেকাতে বা আক্রান্ত কোষগুলোকে মেরে ফেলতে শুরু করে।‘টিকার পুরো কার্যকারিতা তৈরি হতে কমপক্ষে দু-সপ্তাহ বা সম্ভবত আরও বেশি সময় লাগে’ বলেছেন ইম্পিরিয়াল কলেজ লন্ডনের ইমিউনোলজিস্ট অধ্যাপক ড্যানি অল্টম্যান।ইসরায়েলে সাম্প্রতিক সপ্তাহগুলোতে যাদের কভিড-১৯ আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে যেতে হয়েছে, তারা হয়তো টিকার প্রথম ডোজটি নিয়েছে। কিন্তু এর অর্থ এই নয় যে, টিকা কার্যকরী হয়নি।