আজ ২রা বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৫ই এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

দুই মেয়ের মধ্যে প্রেম, বিয়ের সিদ্ধান্তে ঘর ছাড়ার পর যা ঘটলো…

প্রথমবার্তা, প্রতিবেদক:  তারা দুইজনই মেয়ে। দুইজনই এক অপরের সাথে ‘প্রেমের’ সম্পর্কে জড়িয়ে পরেন। তারা একে অপরকে বিয়ে করার সিদ্ধান্ত নিয়ে ঘর ছেড়ে ঢাকা পালিয়ে যায়। কিন্তু এ ঘটনায় বাধ সাধেন আইন শৃঙ্খলা বাহিনী। এক মেয়ের বাবার অভিযোগে আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা বুধবার সকালে তাদের পটুয়াখালী থেকে আটক করেন। এর মধ্যে একজনকে আদালতের মাধ্যমে পটুয়াখালী জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে। অপরজনকে আপাতত পুলিশ হেফাজতে রাখা হয়েছে।

জানা গেছে, বাউফলের জনৈক ব্যক্তি গলাচিপা উপজেলায় একটি এনজিওতে চাকরি করার সুবাধে পরিবার নিয়ে ওখানেই বসবাস করতো। ওই ব্যক্তির দশম শ্রেণীর পড়ুয়া এক কন্যার সাথে ওই উপজেলার অপর এক ব্যক্তির ইন্টার পাশ কন্যার বন্ধুত্বর সম্পর্ক গড়ে উঠে। এক পর্যায়ে তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠলে তারা ঘর বাধার স্বপ্ন দেখেন এবং ২৪ অক্টোবর বাড়ি ছেড়ে ঢাকা পালিয়ে যান।

এ ঘটনায় বাউফলের ওই ব্যক্তি একই দিন রাতে গলাচিপার ওই ব্যক্তির কন্যাকে আসামী করে বাউফল থানায় একটি মামলা করেন। (মামলা নং ২৫ তারিখ ২৪/১০/২১০২০) । ওই দুই কন্যা বুধবার সকালে ঢাকা থেকে যাত্রীবাহী একটি দোতালা লঞ্চযোগে পটুয়াখালী এসে নামলে গোপন সূত্রে খবর পেয়ে র‌্যাব-৮ সদস্যরা তাদের আটক করে বাউফল থানা পুলিশের কাছে সোপর্দ করে।

এর মধ্যে গলাচিপার ওই কন্যাকে ওই দিন আদালতের মাধ্যমে পটুয়াখালী জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত (বিকাল ৫ টা) বাউফলের কন্যাকে পুলিশ হেফাজতে রাখা হয়েছে।