আজ ৭ই বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২০শে এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

kjbn 1

নিউ ইয়র্কের পার্কে হঠাৎ দেখা গেল এই সাদা প্যাঁচা

প্রথমবার্তা, প্রতিবেদক: সাদা প্যাঁচা। তবে লক্ষ্মী প্যাঁচা নয়। প্যাঁচার এই প্রজাতির নাম স্নোয়ি আউল। সম্প্রতি নিউ ইয়র্কের সেন্ট্রাল পার্কে দেখা গেল এই সাদা প্যাঁচার। খবর ভারতীয় গণমাধ্যমের।

নিউ ইয়র্কের মতো জনবহুল শহরে এই প্যাঁচা দর্শন দেয়ায় বেশ আপ্লুত হয়েছেন সাধারণ মানুষ। পরিবেশবিদরা জানাচ্ছেন প্রায় কয়েক দশক পরে দেখা গেল এই স্নোয়ি আউল।

বিষয়টি নিয়ে বেশ অবাক হয়েছেন পাখি বিশেষজ্ঞরা। এত বছর পরে কেন ওই প্যাঁচার আবির্ভাব হলো তা নিয়ে শুরু হয়েছে চর্চা। তবে বিষয়টি যথেষ্ট আকর্ষণীয় হয়ে উঠেছে জনসাধারণের কাছে। একাধিক ফটোগ্রাফার ওই প্যাঁচার ছবি তুলেছেন।

১৩০ বছর আগে প্রথমবার এই প্যাঁচার দেখা পাওয়া গেছিল। এমনটা সেখানকার সংবাদ মাধ্যমের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে। বিশেষজ্ঞদের মতে এর আগে এই প্যাঁচা শেষবার দেখা যায় ১৮৯০ সালে। তারপরে এই ২০২১ সালে আবার দেখা গেছে এই প্যাঁচা। আর সেই কারণেই বিশেষজ্ঞদের কাছে আকর্ষণের বিষয় হয়ে উঠেছে এই স্নোয়ি আউল।

ইতোমধ্যেই এই প্যাঁচা সোশ্যাল মিডিয়াতে রীতিমত ভাইরাল হয়ে ওঠেছে। পাশপাশি পাখি বিশেষজ্ঞরা জানতে চেষ্টা করছেন পৃথিবীতে বর্তমানে এই প্যাঁচার সংখ্যা কত। কার্যত এত বিরল একটি প্রাণীর দেখা পাওয়াতে অবাক হয়েছেন সকলেই।

এই প্যাঁচাটি দেখতে পাওয়ার পরেই ওই পার্কের সামনে লোক জমে গেছিল। অনেকেই মোবাইল ফোনে তুলে নিয়েছেন বিরল স্নোয়ি আউলের ছবি। আর এখন তো সেই সব ছবি রীতিমত ভাইরাল হয়ে গেছে।

বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছে, সাধারণ এই প্যাঁচা দেখতে পাওয়া যায় সমুদ্র সৈকত এবং ফাঁকা দ্বীপে। কিন্তু সেখান থেকে কীভাবে নিউ ইয়র্কের মতো শহরে এই প্যাঁচা এল তা জানার চেষ্টা করা হচ্ছে। বিষয়টি নিয়ে বেশ কৌতুহলী বিশেষজ্ঞরা। নতুন বছরের শুরুতে প্রায় এই প্যাঁচা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে এক রকম স্টার হয়ে গেছে। ইতোমধ্যে এই প্যাঁচা নিয়ে শুরু হয়েছে গবেষণা।