আজ ৫ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৯শে মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

Screenshot 2020 1012 192929

পঞ্চগড়ে বিদ্যুৎ অফিসের অবহেলায় গৃহবধূর মৃত্যু

প্রথমবার্তা, প্রতিবেদক: পঞ্চগড় সদর উপজেলায় বিদ্যুৎ অফিসের অবহেলায় বিদ্যুস্পৃষ্ট হয়ে আনজু বেগম (২৫) নামে এক গৃহবধূর মৃত্যু হয়েছে। এতে করে পুরো এলাকায় নেমে এসেছে শোকের মাতম।

 

সোমবার (১২ অক্টোবর) বিকেলে অমরখানা ইউনিয়নের ঠুটাপাখুরী গ্রামে এ দূর্ঘটনাটি ঘটে। নিহত আনজু একই গ্রামের জাহিদুল ইসলামের স্ত্রী।স্থানীয় ও পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, দুপুরে বাড়ির পাশের মাঠে ঘাস কাটতে যায় আনজু।

 

বিকেল হয়ে আসায় সে বাড়িতে না ফেরায় তার দেবরসহ বাড়ির সদস্যরা বাড়ির পাশে গেলে তাকে বিদ্যুতের তারের সাথে মাটিতে লুটিয়ে পড়ে থাকতে দেখে।

 

পরে তাদের চিৎকারে স্থানীয়রা ঘটনাস্থলে ছুটে এসে আনজুকে মৃত অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখে। নেসকোর ফোর ফোরটি ১১ হাজার পাওয়ারের (ডি-১১) লাইটি বাঁশে, গাছে ফাটা তার দিয়ে অবৈধ ভাবে টানায় দূর্ঘটনাটি ঘটে।

 

তার শরীরে বিভিন্ন অংশ পুড়ে যায় বলে স্থানীয়রা জানায়। আর এই সংযোগটি নেসকোর কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের সহযোগীতায় মূল পিলার থেকে প্রায় ১ হাজার গজ দূরে নিয়ে যায় আমিনার মাস্টার নামে এক লোক বলে স্থানীয়রা জানায়।

 

স্থানীয় সেলিম, দারাজুল ও মামুন জানান, বিভিন্ন সময় এই বাঁশ ঝড়-বাতাসে ভেঙ্গে পড়লে অফিসকে একাধীকবার বিদ্যুৎ অফিস (নেসকো) কে অভিযোগ করা হয়। কিন্তু অফিসের এই অবহেলায় বাঁশ দিয়ে লাইন টানায় দূর্ঘটনাটি ঘটে।

 

উপজেলা মহিলা সদস্য সাবিনা ইয়াসমিন জানান, আমি বিদ্যুৎ অফিস নেসকোকে একাধীকবার অভিযোগ করেছি, কিন্তু তারা গুরুত্ব দেয় নি। এবংকি দূর্ঘটনার এই দিনেও সকালে অফিসে অভিযোগ করি লাইন গুলোর ব্যবস্থা করার জন্য।পঞ্চগড় সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি তদন্ত) জামাল হোসেন বিদ্যুৎস্পৃষ্টে ওই গৃহবধূর নিহতের বিষয়টি নিশ্চিত করেন।