আজ ২৮শে চৈত্র, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১১ই এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

170004kalerkantho pic 1

পিপলস লিজিং’র সাবেক চেয়ারম্যান মোয়াজ্জেম হোসেনসহ ৩ জনকে হাইকোর্টে তলব

প্রথমবার্তা প্রতিবেদকঃ নন-ব্যাংকিং আর্থিক প্রতিষ্ঠান পিপলস লিজিং অ্যান্ড ফাইনানসিয়াল সার্ভিসেস (পিএলএফএস) লিমিটেডের সাবেক চেয়ারম্যান ক্যাপ্টেন (অব.) এম মোয়াজ্জেম হোসেন, তার পরিবারের অপর দুইসদস্যসহ ৩ জনকে তলব করেছেন হাইকোর্ট।

 

নিজের বিও (বেনিফিশিয়ারি ওনার্স) হিসাব থেকে পিএলএফএস লিমিটেডের অনুকূলে শেয়ার ফেরত দিতে কেন নির্দেশ দেওয়া হবে না, তার ব্যাখ্যা দিতে আগামী ৩ ফেব্রুয়ারি তাদের হাইকোর্টে হাজির হতে বলা হয়েছে।

 

বিচারপতি মুহাম্মদ খুরশীদ আলম সরকারের হাইকোর্ট বেঞ্চ মঙ্গলবার এ আদেশ দিয়েছেন। অবসায়ন প্রক্রিয়ার মধ্যে থাকা পিএলএফএস লিমিটেডের সাময়িক অবাসায়ক (প্রবেশনাল লিক্যুডেটর) মো. আসাদুজ্জামান খানের করা এক আবেদনে এ আদেশ দেওয়া হয়।

 

আবেদনে মোয়াজ্জেম হোসেনের বিও (বেনিফিশিয়ারি ওনার্স) হিসাবে স্থানান্তর করা ৩১ লাখ ২৫ হাজার শেয়ার পিএলএফএস লিমিটেডে ফেরত দেওয়ার নির্দেশনা চাওয়া হয়। আবেদনকারীপক্ষে আইনজীবী ছিলেন ব্যারিস্টার মেজবাহুর রহমান। বাংলাদেশ ব্যাংকের পক্ষে ছিলেন ব্যারিস্টার কাজী এরশাদুল আলম।

 

মোয়াজ্জেম হোসেনের পরিবারের ওপর দুই সদস্য হলেন, ফারজানা মোয়াজ্জেম ও এহসান-ই-মোয়াজ্জেম। এই তিন ব্যক্তি ছাড়াও ই-সিকিউরিটিস লিমিটেড এবং গ্রেডওয়ালস ল্যান্ড প্রোপার্টিস লিমিটেডের প্রধানকেও তলব করা হয়েছে। ওই দুটি প্রতিষ্ঠানের কর্ণধারও এম মোয়াজ্জেম হোসেন।

 

ব্যারিস্টার মেজবাহুর রহমান জানান, পিএলএফএস লিমিটেড থেকে এসএস স্টিল লিমিটেডকে আইপিও (ইনিশিয়াল পাবলিক অফারিং বা প্রাথমিক গণপ্রস্তাব) শেয়ার কেনার জন্য ২০১৫ সালে ৬ কোটি ২৫ লাখ ৫০ হাজার টাকা দেওয়া হয়।

 

এরপর এসএস স্টিল লিমিটেড ২০১৮ সালে ১০ টাকা মূল্যের ৩১ লাখ ৩০ হাজার শেয়ার পিপলস লিজিং-এর অনুকূলে স্থানান্তর করে। ওই সময় বাকি ৩১ লাখ ২৫ হাজার শেয়ার পিপলস লিজিং-এর অনুকুলে স্থানান্তর না করে পিপলস লিজিং-এর চেয়ারম্যান এম মোয়াজ্জেম হোসেন নিজের বিও হিসাবে স্থানান্তর করে নেন।

 

এই শেয়ার পিপলস লিজিং-এর অনুকুলে স্থানান্তরের নির্দেশনা চেয়ে গতবছর ৯ ডিসেম্বর হাইকোর্টে আবেদন করা হয়। এ আবেদনের ওপর শুনানি নিয়ে আজ আদেশ দিলেন আদালত।