আজ ৩রা আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৭ই জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

123652Untitled 1

মার্কিন রাজনীতিতে অস্থিরতা, সেনাকর্তাদের নজিরবিহীন বার্তা

প্রথমবার্তা প্রতিবেদকঃ ইন্দোনেশিয়ায় বিশ্বের প্রাচীনতম প্রাণী গুহাচিত্রের সন্ধান পেয়েছেন প্রত্নতত্ত্ববিদরা। তাদের ধারণা, বন্য শুকরের ওই ছবিটি ৪৫ হাজার বছরের পুরনো।

বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ছবিতে গাঢ় লাল মাটি ব্যবহার করা হয়েছে। এতে সুলাওসি ওয়ার্টি প্রজাতির শুকরের দৈনন্দিন জীবনের দৃশ্য ফুটিয়ে তোলা হয়েছে।

সুলাওসি দ্বীপের প্রত্যন্ত উপত্যকায় লেয়াং টেডংঞ্জ গুহায় ছবিটি পাওয়া গেছে। প্রত্নতত্ত্ববিদরা বলছেন, ওই অঞ্চলে যে মানুষের বসতি ছিল ছবিটি তার প্রমাণ বহন করে।

সায়েন্স অ্যাডভান্সেস জার্নালে প্রকাশিত এ সংক্রান্ত একটি প্রতিবেদনের সহ-লেখক ম্যাক্সিম অবার্ট বলেছেন, যারা ছবিটি এঁকেছেন তারা পুরোপুরি আধুনিক ছিলেন। তাদের কাছে পছন্দ মতো চিত্রকর্ম তৈরির সরঞ্জাম ছিল।

অবার্ট ওই ছবির উপরের দিকে এক ধরনের প্রাচীণ কার্বনেট খনিজের অস্তিত্ব খুঁজে পান। সেটা থেকেই ধারণা করা হচ্ছে, ছবিটি ৪৫ হাজার বছর আগে আঁকা। তবে তিনি এও বলেন, চিত্রকর্মটি এর চেয়েও পুরনো হতে পারে। কারণ ছবিটির শুধু উপরের দিকে ওই কার্বনেট খনিজ ব্যবহার করা হয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ৫৩ বাই ২১ ইঞ্চি ওই ছবিতে ওয়ার্ট প্রজাতির শুকরের শিং আঁকা হয়েছে। সাধারণত প্রাপ্তবয়স্ক শুকরের এমন শিং দেখা যায়।

প্রতিবেদনের আরেক সহ-লেখক অ্যাডাম ব্রুম বলেছেন, দেখে মনে হয়, ছবির শুকরটি অন্য শুকরের সঙ্গে লড়াই বা সামাজিক মিথস্ক্রিয়ার জন্য তৈরি।প্রত্নতত্ত্ববিদদের ভাষায়, চিত্রকর্মটি বিশ্বে প্রাচীনতম হলেও এটিই প্রথম শিল্পকর্ম নয়।