আজ ২৭শে বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১০ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

193459evacuation vecu 1

লক্ষ্মীবাজারে গুঁড়িয়ে দেওয়া অবৈধ মার্কেটের জায়গায় হবে খেলার মাঠ

প্রথমবার্তা, প্রতিবেদক:ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন (ডিএসসিসি) কর্তৃক লক্ষ্মীবাজারে গুঁড়িয়ে দেওয়া সেই অবৈধ মার্কেটের জায়গায় খেলার মাঠ করার নির্দেশনা দিয়েছেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস।

আজ রবিবার বিকেলে দাপ্তরিক এক বৈঠকে ডিএসসিসি মেয়র ব্যারিস্টার শেখ তাপস কর্পোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা এবিএম আমিন উল্লাহ নুরী ও প্রধান প্রকৌশলী রেজাউর রহমানকে এই নির্দেশনা দেন।

নির্দেশনা প্রসঙ্গে ডিএসসিসির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা এ বি এম আমিন উল্লাহ নুরী বলেন, ঢাকা মহানগরীতে খেলার মাঠের সংখ্যা প্রয়োজনের তুলনায় অপ্রতুল। ফলে, জনস্বাস্থ্য বিঘ্নিত হওয়ার পাশাপাশি শিশু-কিশোরদের মানসিক বিকাশও বাধাগ্রস্ত হচ্ছে। ডিএসসিসি মেয়র মহোদয়ের নির্দেশনার আলোকে আমরা আগামীকাল হতেই খেলার মাঠ গড়ে তোলার কার্যক্রম শুরু করব।

উল্লেখ্য, ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন (তৎকালীন ঢাকা সিটি কর্পোরেশন) থেকে ১৯৯৫ সালে কার পার্কিং এর নামে লক্ষীবাজার এলাকায় ১০.০৮ শতক জায়গা বরাদ্দ নিয়েছিল জনৈক বিল্লু নামীয় এক ব্যক্তি। ইজারার টাকা দুই কিস্তিতে পরিশোধ করার কথা থাকলেও প্রথম কিস্তি পরিশোধের পর সময়মতো দ্বিতীয় কিস্তি পরিশোধ না করায় কর্পোরেশন ১৯৯৫ সালে তার ইজারা বাতিল করে। ইজারা বাতিল করা হলে জনৈক বিল্লু সংক্ষুব্ধ হয়ে দেওয়ানী আদালতে ইজারা বাতিলের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন এবং কার পার্কিং থাকা অবস্থায় তাকে উচ্ছেদের বিপক্ষে আদালত হতে চিরস্থায়ী নিষেধাজ্ঞা আনতে সক্ষম হন। পরে বর্ণিত কার পার্কিংয়ের জন্য ইজারা নেওয়া জায়গায় জনৈক বিল্লু গড়ে তোলেন অবৈধ মার্কেট। এই দীর্ঘ সময়ে তিনি কর্পোরেশনকে কোন অর্থ পরিশোধ না করলেও বহাল তবিয়তে ভোগ করে আসছিলেন এই অবৈধ সম্পাদলব্দ অর্থ-বিত্ত।

অবশেষে গত বৃহস্পতিবার বিকেলে ডিএসসিসির নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট এ এইচ ইরফান উদ্দিন আহমেদের নেতৃত্বাধীন ভ্রাম্যমাণ আদালত ৭৩-৭৪ সুভাষ বোস এভিনিউ এর লক্ষীবাজার মেইন রোড সংলগ্ন অবৈধ মার্কেটটি উচ্ছেদ করেন। উচ্ছেদ অভিযানে আনুমানিক ৪০টি কাপড়ের দোকান ও কাঁচা বাজার গুঁড়িয়ে দেয়া হয়।