আজ ১৩ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৮শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

শাটডাউন

‘শাটডাউন’ পুরোপুরি কার্যকর করা হবে ১ জুলাই থেকে সারাদেশে

প্রথমবার্তা, প্রতিবেদক:  দেশে সোমবার থেকে ‘শাটডাউন’ দেবার যে কথা সরকার আগে ঘোষণা করেছিল সেটি পিছিয়ে দেয়া হয়েছে।স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খানের সভাপতিত্বে শনিবার অনুষ্ঠিত বৈঠকে এই সিদ্ধান্ত হয়। খবর বিবিসি বাংলার।

 

সিদ্ধান্ত হয়েছে যে সোমবার থেকে আশিংক ‘শাটডাউন’ কার্যকর করা হবে এবং ১লা জুলাই থেকে পুরোপুরি কার্যকর করা হবে।সোমবার থেকে গণপরিবহন চলাচল সীমিত হয়ে যাবে। সীমিত পরিসরে কিছু প্রতিষ্ঠান খোলা থাকবে।

 

এর মধ্যে বাণিজ্যিক অন্যতম।পয়লা জুলাই থেকে পুরোপুরি কার্যকর হলেও শিল্পকারখানা শাটডাউনের আওতার বাইরে থাকবে।এর আগে করোনাভাইরাস সংক্রমণের বিস্তার ঠেকাতে সরকার সোমবার ২৮শে জুন থেকে আবার সাতদিনের জন্য সব কিছু বন্ধ রাখার ঘোষণা দিয়েছিল।তবে এনিয়ে সরকার যত কঠোর অবস্থানের কথাই বলুক না কেন-তার বাস্তবায়ন নিয়ে বিশেষজ্ঞদের সন্দেহ রয়েছে।

 

ঝুঁকিতে ৪০টি জেলা

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বলেছে, ভারতীয় ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টের সংক্রমণের বিস্তারের মুখে উচ্চ ঝুঁকিতে রয়েছে সীমান্তবর্তী জেলাগুলো সহ ৪০টি জেলা।বিভিন্ন জেলায় এলাকাভিত্তিক লক ডাউন রয়েছে। রাজধানী ঢাকাকে বিচ্ছিন্ন করতে চারপাশের জেলাগুলোতেও লক ডাউন দেয়া হয়েছে।এখন জাতীয় পরামর্শক কমিটির সম্পূর্ণ শাট ডাউন দেয়ার সুপারিশের ভিত্তিতে সারাদেশে আবার সবকিছু বন্ধ করে দেয়ার কথা বলা হচ্ছে সরকারের পক্ষ থেকে।

নতুন বিধিনিষেধের কথা কেন ভাবা হচ্ছে?

জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন অবশ্য বলেছেন, শাট ডাউন বা লকডাউন শব্দের ব্যবহার না করে এবার বিধিনিষেধ পুরোপুরি কার্যকর করার চেষ্টা তাদের থাকবে।“আসলে শাট ডাউন বা লক ডাউন-এগুলো বিষয় না। আমরা বিধিনিষেধ বলছি এটাকে আমরা কঠোর বিধিনিষেধই বলবো।”