আজ ৩১শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৪ই জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

Screenshot 2020 1103 211305

শৈলকুপায় আদিবাসী পল্লীতে দুই ব্যক্তির সংঘর্ষ: আতঙ্কে হয়তো হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে নারীর মৃত্যু

প্রথমবার্তা, প্রতিবেদক: ঝিনাইদহের শৈলকুপার পল্লীতে নিজ জামাইয়ের সাথে প্রতিপক্ষের সংঘর্ষ থামাতে গিয়ে ঘটনাস্থলেই মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়লো লতা বালা (৫৫) নামের এক আদিবাসী নারী।

ঘটনাটি সোমবার রাত সাড়ে সাতটার দিকে ঝিনাইদহের শৈলকুপার ৫নং কাচেরকোল ইউনিয়নের মধুদহ আদিবাসী পল্লীতে। এদিকে মারা যাওয়া নারীর ছেলের অভিযোগ কিল ঘুসিতেই তার মৃত্যু হয়েছে। পুলিশ রাতেই ঘটনাস্থলে পৌছে মরদেহ উদ্ধার করে ঝিনাইদহ মর্গে প্রেরন করে বলে জানা যায়। নিহত লতা বালা আদিবাসী পল্লীর আসু সরকারের স্ত্রী।

স্থানীয়রা জানান, দীর্ঘদিন লতা বালার জামাই বিদ্যুৎ সরাকর ও একই পল্লীর খোকন সরকারের মধ্যে বিরোধ চলে আসছে। এরই জের ধরে সোমবার রাত সাড়ে সাতটার দিকে উভয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে।

এ সময় সংঘর্ষ থামাতে গিয়ে বিদ্যৎ সরকারের শাশুরী লতা বালা ঘটনাস্থলে মারা যায়। লতা বালার ছেলে রাম সরকার অভিযোগ তার ভগ্নিপতির সাথে খোকন সরকারের সংঘর্ষের সময় এলোপাতাড়ি কিলঘুষিতে তার মায়ের মৃত্যু হয়েছে।

শৈলকুপা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জাহাঙ্গীর আলম বলেন পুলিশের প্রাথমিক ধারনা শৈলকুপার কাচেরকোল ইউনিয়নের মধুদহ আদিবাসী পল্লীতে দুই ব্যক্তির সংঘর্ষ দেখে আতঙ্কে হয়তো হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে লতা বালা নামের এক নারীর মৃত্যু হয়েছে। তবে ময়না তদন্তের রিপোর্ট পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে বলে তিনি জানান।