আজ ৫ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৯শে মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

Screenshot 2020 1025 005747

হয় বিয়ে, না হয় আত্মহত্যা!

প্রথমবার্তা, প্রতিবেদক: ঝিনাইদহের শৈলকুপা উপজেলার মির্জাপুর ইউনিয়নের চরপাড়া গ্রামে বিয়ের দাবিতে প্রেমিক রাশেদ মন্ডল(৩০) এর বাড়িতে ৫ দিন ধরে অনশনে থাকার পর অবশেষে শুক্রবার রাশেদসহ শৈলকুপা থানায় ৫ জনের নামে মামলা হয়েছে।

 

মামলার বাদী প্রেমিকা জলি খাতুন (১৮)। রাশেদ ঐ গ্রামের মৃত হিজাবদি মন্ডলের ছেলে। রাশেদ একটি এনজিওতে চাকুরী করতো বর্তমানে বেকার। এ ঘটনার পর থেকেই প্রেমিক রাশেদ পলাতক রয়েছে।

 

উপজেলার চরপাড়া গ্রামের মেয়ে জলি জানায়, প্রেমিকের বাড়ীর নিকট নানা বাড়ী হওয়ার সুবাদে আসা যাওয়ার পথে রাশেদের সাথে পরিচয়। ৩ বছর ধরে তার সাথে আমার প্রেমের সম্পর্ক। বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে আমার সাথে শারীরিক সম্পর্ক করলেও রাশেদ পরে বিয়েতে রাজী না হওয়ায় আমি রোববার রাশেদের বাড়িতে উপস্থিত হয়ে বিয়ের দাবী করলে পরিবারের সদস্যরা আমাকে মারপিট করে।

 

আমি বিয়ের দাবীতে ৫ দিন ধরে অনশনে বসেছি। বিয়ে না করলে আমি আত্মহত্যা করবো। সঠিক বিচারের দাবীতে আমি রাশেদসহ ৫ জনের নামে থানায় মামলা করেছি।

 

এ ব্যাপারে ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে রাশেদের মা বেদানা বেগম বলেন, আমার ছেলের সঙ্গে মেয়েটির সম্পর্ক গড়ে ওঠে। কিন্তু মেয়েটি পূর্বে বিবাহিত জানতে পেরে আমার ছেলে মেয়েটিকে ছেড়ে দিলেও মেয়েটি তাকে ছাড়ছে না।

 

তিনি বলেন, বিয়ের দাবিতে রোববার থেকে মেয়েটি আমার বাড়িতে অনশন করছে। শৈলকুপা থানা ওসি জাহাঙ্গীর আলম বলেন মেয়েটির অভিযোগের ভিত্তিতে রাশেদসহ ৫ জনের নামে মামলা হয়েছে।