আজ ২৯শে চৈত্র, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১২ই এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

152142Capture

সুস্থ থাকতে নতুন বছরে মেনে চলুন এই ডায়েট টিপস

প্রথমবার্তা প্রতিবেদক:২০২০ ছিলো আমাদের জন্য একটি মনে রাখার মত বছর। করোনা আমাদের জীবনের অনেক কিছুই পরিবর্তন করে দিয়েছে। তবে একটা ভালো অভ্যাস আমাদের মধ্যে তৈরি করেছে আর তা হলো বাড়িতে বানানো খাবার খাওয়া এবং পরিবারের সবার সাথে খাওয়া। আরেকটি বিষয় হলো সুস্বাস্থ্য বজায় রাখা। সুস্বাস্থ্য সবারই একান্ত কাম্য। এজন্য সারা বছর সুস্থ থাকার জন্য বছরের শুরুতে ডায়েট প্ল্যান ঠিক করে নিন।

ছোট থেকেই শুরু:

প্রথমেই এমন কিছু থেকে শুরু করবেন না যা করা আপনার পক্ষে অসম্ভব। ছোট ছোট ভালো অভ্যাস গড়ে তুলুন। যেমন রাত ৯ টার পর রান্নাঘরে যাওয়া বন্ধ করুন,বসে থাকলে আধা ঘন্টা পরপর উঠে একটু হাটাহাটি করুন। প্রতিদিন কোন না কোন ফল খাওয়ার চেষ্টা করুন। এই অভ্যাস তৈরি করতে আপনার ২১ দিন সময় লাগবে। আর তিন মাসে আপনার জীবনযাত্রার অংশে পরিণত হবে।

ঠিক সময়ে খাওয়া:

প্রতিদিন একই সময়ে খাওয়ার চেষ্টা করুন। এতে করে আপনার ক্ষুধা নিয়ন্ত্রণে রাখবে। বাড়ি বসে কাজ করলেও প্রতিদিন সময় মেনে খাওয়া দাওয়া করুন।

সঠিক খাবর খাওয়া:

চারপাশের অনেক তথ্যের কারণে মানুষ বিভ্রান্ত হয়ে ওঠে। ইন্টারনেটে সার্চ করলে যে ওয়েস্টার্ন লাইফস্টাইল পাওয়া যায় তা আমাদের জীবনধারার সাথে মিলে না। সবার প্রথমে উচিত তাজা এবং মৌসুমী খাবার খাওয়া। খাবারের গুণনত মান ও খাবারের ব্যবহৃত তেলের বিষয়ে আমাদের সতর্ক থাকা উচিত।

খাওয়ার পরিমাণ:

আপনি দিনে কতটুকু খাবেন তা নির্ভর করবে আপনার বয়স,লিঙ্গ এবং স্বাস্থ্যের উপর। শরীরের যতটুকু খাবার প্রয়োজন ঠিক ততটুকুই খান এর বেশি না বা কম না। আপনি যদি নিয়ম মেনে খাওয়া দাওয়া করেন তবে মাঝে মধ্যে বার্গার,সমুচা খেলে খুব বেশি ক্ষতি হবে না।

নিয়মিত ওজন মাপুন:

প্রত্যেক মানুষের উচিত প্রতি ১৫ দিন পর পর ওজন মাপা। ওজন দেখেলেই বুঝতে পাবেন আপনার স্বাস্থ্য ভালো আছে নাকি খারাপের দিকে যাচ্ছে। ডায়েট চার্ট অনুসরণ করলে প্রতিনিয়ত আপনার ওজন কমতে থাকবে আবার হিতে বিপরীতে ওজন বেড়েও যেতে পারে।

সুন্দর মন:

সুস্বাস্থ্যের সাথে মনও জড়িত। প্রতিদিন ৬ থেকে ৮ ঘন্টা ঘুমানোর চেষ্টা করুন। এছাড়া মস্তিষ্ককে আপনার প্রতিদিনের কাজ কর্ম থেকে নিয়মিত এক ঘন্টা বিশ্রাম দিন। প্রয়োজনে ইয়োগা করুন, গান শুনুন, বই পড়ুন। এতে আপনার মন সতেজ থাকবে এবং শরীরের উপর কোন প্রভাব পড়বে না।

শরীরচর্চা:

আপনার ম্যারাথন দৌড় বা জিমের দরকার নেই। প্রতিদিন বাড়িতেই আধা ঘন্টা ব্যায়াম করুন এতে করে আপনার শরীর ভালো থাকবে। সিড়ি দিয়ে উঠুন,ফোনে কথা বলার সময় হাটুন,জামা কাপড় ইস্ত্রি করুন, গৃহাস্থলীর কাজ করুন।