আজ ১৯শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ৪ঠা ডিসেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

জমি লিখে না-দেওয়ায় বৃদ্ধ বাবাকে পেটাল ছেলেরা

প্রথমবার্তা, প্রতিবেদকঃ বগুড়ার ধুনট উপজেলায় জমি লিখে না দেওয়ায় ছকুমুদ্দিন তালুকদার (৭৫) নামে এক ব্যবসায়ীকে পিটিয়ে আহত করেছে তার ছেলেরা। এঘটনায় বৃদ্ধ বাবা তার ছেলে নায়েব আলী, সাহেব আলী ও জাহিদুলসহ পাঁচজনের বিরুদ্ধে থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন।বৃহস্পতিবার সকালের দিকে ধুনট থানার ওসি কৃপা সিন্ধু বালা এ তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, বৃদ্ধকে মারপিটের অভিযোগটি তদন্ত করে দেখার জন্য একজন পুলিশ কর্মকর্তাকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। অভিযোগের সত্যতা পাওয়া গেলে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।অভিযোগে জানা গেছে, উপজেলার বিশ্বহরিগাছা গ্রামের ছকুমুদ্দিন তালুকদারের চার ছেলে। সবাই কর্মজীবী। কিন্ত চার ছেলে বাবাকে ভরণপোষণ করে না। বাধ্য হয়ে তিনি প্রায় ২০ বছর আগে নিজ বাড়ি ছেড়ে একই গ্রামে তার মেয়ে নাছিমা খাতুনের বাড়িতে আশ্রয় নিয়েছেন। সেখানে মেয়ে ও জামাই ফরিদুল ইসলাম তার দেখভাল করেন। পাশাপাশি তিনি রাসায়নিক সারের ব্যবসা করেন।এ অবস্থায় দীর্ঘদিন ধরে ছুকুমুদ্দিনের ৫৫ শতক জমি লিখে নিতে চান তার তিন ছেলে। কিন্ত বাবা ছেলেদের নামে জমি লিখে দিতে রাজি হননি। এতে ছেলেরা ক্ষুদ্ধ হয়ে ১৫ দিন আগে বাবার ৫৫ শতক ফসলি জমি বেদখল করেন। তাতেও ছেলেরা ক্ষ্যান্ত হননি। বাবার নিকট থেকে ওই জমি লিখে নেওয়ার জন্য বার বার চাপ দিতে থাকেন। একপর্যায়ে ১১আগস্ট সকালের দিকে রেজিস্ট্রি অফিসে নিয়ে জমি লিখে নেওয়ার উদ্দেশ্যে মারপিট করে ছকুমুদ্দিনকে  জোরপূর্বক ভ্যানে ওঠানোর চেষ্টা করেন তিন ছেলে। এসময় ছেলেদের নির্যাতনের শিকার বাবা চিৎকার করায় স্থানীয় লোকজন ঘটনাস্থলে পৌঁছান। তারা ছেলেদের হাত থেকে আহত ছকুমুদ্দিনকে উদ্ধার করে ধুনট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। এঘটনায় ছকুমুদ্দিন তার তিন ছেলেসহ পাঁচজনের বিরুদ্ধে বুধবার থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন।  এবিষয়ে বৃদ্ধর ছেলে জাহিদুল ইসলাম বলেন, বাবা তার সম্পতি থেকে আমাদের তিন ভাইকে বঞ্চিত করেছেন। এ বিষয় নিয়ে বাবার সাথে আমাদের কথাকাটাকাটির একপর্যায়ে ধাক্কাধাক্কির ঘটনা ঘটে। এসময় বাবা পড়ে গিয়ে আঘাত পেয়েছেন। তাকে মারপিটের ঘটনা সঠিক না।