আজ ৭ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২২শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

পালাল বর, কনে ও স্বজনরা, ভাঙল বিয়ে

প্রথমবার্তা, প্রতিবেদকঃ অপ্রাপ্তবয়স্ক মেয়েকে বিয়ে দিলে ভ্রাম্যমাণ আদালতের ভয় আছে- এমন শঙ্কা থেকে কনেকে একদিন আগেই নিয়ে রাখা হয় বরের বাড়িতে। তবুও শেষ রক্ষা হলো না। খবর পেয়ে বরের বাড়িতেই হানা দেয় ভ্রাম্যমাণ আদালত। এসময় বর, কনেসহ স্বজনরা পালিয়ে যায়। ঘটনাটি ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবার। বরের বাড়িতে উপস্থিত হয়ে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট হাসিব খাঁনের ভ্রাম্যমাণ আদালত বিয়ে বন্ধ করে দেন। পাশাপাশি কনে প্রাপ্তবয়স্ক না হওয়া পর্যন্ত বিয়ে না-দেওয়ার জন্য ব্যবস্থা নিতে স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান ও মেম্বারকে দায়িত্ব দেন। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, কসবা উপজেলার গোপীনাথপুর ইউনিয়নের বংশীপাড়ার এক যুবকের সাথে তারই মামাতো বোন আখাউড়া উপজেলার মনিয়ন্দ গ্রামের বাসিন্দা ও নবম শ্রেণির ছাত্রীর বুধবার দুপুরে বরের বাড়িতে হওয়ার কথা ছিল। কনের বাড়িতে বিয়ের আয়োজন করলে ভ্রাম্যমাণ আদালতের ভয় আছে- এই শঙ্কায় কনেকে একদিন আগেই বরের বাড়িতে নিয়ে আসা হয়। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বিষয়টি জানতে পেরে বুধবার দুপুরে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট হাসিবা খাঁন পুলিশ নিয়ে বিয়ে বাড়িতে উপস্থিত হন। এর আগেই পালিয়ে যায় বর, কনেসহ বাড়ির সবাই।