আজ ১৪ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৯শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

সাড়ে ১৫ হাজার ছাড়ালো চট্টগ্রামে করোনা রোগীর সংখ্যা

প্রথমবার্তা, প্রতিবেদকঃ  চট্টগ্রামে গত ২৪ ঘন্টায় নতুন করে ৬৬ জনের দেহে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে। এদের মধ্যে ৫৯ জনই নগরের এবং বাকি ৭ জন উপজেলার। তবে একইসময়ে আগেরদিনের চেয়ে বেশি রোগী সুস্থ হয়েছেন এবং মারা গেছেন একজন।নতুন শনাক্ত ৬৬ জন নিয়ে চট্টগ্রামে এখন করোনা রোগীর সংখ্যা ১৫ হাজার ৫৫৭। এর মধ্যে নগরে ১০ হাজার ৯৫৮ জন এবং উপজেলায় চার হাজার ৫৯৯ জন। এদের মধ্যে সুস্থ হয়েছেন তিন হাজার ৩৮১ জন এবং করোনার কাছে হার মেনেছেন ২৪৭ জন। যাদের মধ্যে নগরের ১৭১ ও উপজেলার রয়েছে ৭৬ জন।বৃহস্পতিবার (১৩ আগস্ট) সকালে চট্টগ্রামের সিভিল সার্জন ডা. সেখ ফজলে রাব্বি এসব তথ্য জানান। সিভিল সার্জনের দেয়া রিপোর্টে চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি ইউনিভার্সিটি (সিভাসু) ল্যাব, বেসরকারি শেভরন ল্যাব এবং কক্সবাজার ল্যাবে করোনার নমুনা পরীক্ষা হওয়ার কোন তথ্য ছিল না।সিভিল সার্জন জানান, সাতটি ল্যাবের মধ্যে চারটি ল্যাব মিলে ৪৭৫ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ৬৬ জনের দেহে করোনা শনাক্ত হয়। যাদের মধ্যে নগরের ৫৯ জন এবং উপজেলার ৭ জন। একইসাথে গত ২৪ ঘণ্টায় চট্টগ্রামে করোনা থেকে ৭১ জন সুস্থ হয়েছেন এবং নতুনভাবে মারা গেছেন উপজেলার একজন।গত ২৪ ঘণ্টায় চট্টগ্রামের প্রধান করোনা পরীক্ষাগার ফৌজদারহাটের বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ট্রপিক্যাল অ্যান্ড ইনফেকশাস ডিজিজেস (বিআইটিআইডি)-তে বিদেশগামীদের বাধ্যতামূলক করানো করোনা টেস্টসহ দিনের সর্বাধিক ২৪৩ জনের নমুনা পরীক্ষা করোনা করা হয়। তাতে করোনা শনাক্ত হয় ২০ জন। এর মধ্যে ১৭ জন নগরের বাসিন্দা ও ৩ জন বিভিন্ন উপজেলার।চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি ইউনিভার্সিটি (সিভাসু) ল্যাবে করোনার নমুনা পরীক্ষার হওয়ার কোন তথ্য পাওয়া যায়নি।চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ ল্যাবে ২৪ ঘণ্টায় ৯৬ জনের নমুনা পরীক্ষা করে দিনের সর্বোচ্চ ২২ জনের শরীরে করোনাভাইরাসের জীবাণু পাওয়া যায়। যাদের মধ্যে নগরেরই ২০ জন, বাকি ২ জন উপজেলার বাসিন্দা।চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ল্যাবে ৫০ জনের করোনার পরীক্ষা হয়। তাতে ৯ জনের করোনা শনাক্ত হয়। যাদের মধ্যে ৭ জন নগরের এবং ২ জন উপজেলার।বেসরকারি ইম্পেরিয়াল হাসপাতাল ল্যাবে ৮৬ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ১৫ জনের দেহে করোনা পজিটিভ শনাক্ত হয়। যাদের ১৫ জনই নগরের।চট্টগ্রামের আরেকটি বেসরকারি পরীক্ষাগার শেভরণ ল্যাবে এবং কক্সবাজার মেডিকেল কলেজ ল্যাবেও করোনার নমুনা পরীক্ষার হওয়ার কোন তথ্য পাওয়া যায়নি।উপজেলা পর্যায়ে নতুনভাবে করোনা শনাক্ত ৭ জনের মধ্যে রাউজানে ৩ জন, আনোয়ারা ও হাটহাজারীতে ২ জন করে এবং বোয়ালখালী, রাঙ্গুনিয়া ও মিরসরাইয়ে ১ জন করে করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে।