আজ ১৯শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ৪ঠা ডিসেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

ঘুষি মেরে হাঙর তাড়িয়ে স্ত্রীকে বাঁচালেন স্বামী

প্রথমবার্তা, প্রতিবেদক: সিনেমার পর্দায় নায়িকাকে বাঁচাতে অসম্ভবকে সম্ভব করেন নায়করা। কিন্তু বাস্তবজীবনে অস্ট্রেলিয়ার এক তরুণ তা-ই করলেন। জীবন বাজি রেখে একটি হাঙরকে ক্রমাগত ঘুষি মেরে স্ত্রীকে বাঁচিয়েছেন তিনি। ঘটনাটি ঘটেছে স্থানীয় সময় শনিবার সকালে অস্ট্রেলিয়ার সিডনি লাগোয়া ম্যাকোয়্যার বন্দরে।

আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম সূত্রে জানা যায়, বন্দরের কাছে যখন মার্ক র‌্যাপ্লে এবং তাঁর স্ত্রী সি-সার্ফিং করছিলেন, তখন আচমকা একটি হাঙর মার্কের স্ত্রীর ডান পায়ে প্রথমে একবার কামড় দেয়। তিনি যন্ত্রণায় কঁকিয়ে উঠতেই ফের তাঁর পা কামড়ে ধরে হাঙরটি। ঘটনা বুঝতে পেরেই মার্ক নিজের প্রাণের তোয়াক্কা না করে স্ত্রীকে বাঁচাতে প্রায় ১০ ফুট লম্বা ওই হাঙরটিকে ক্রমাগত ঘুষি মারতে থাকেন। অবশেষে রণে ভঙ্গ দিয়ে পালিয়ে যায় হাঙরটি। তারপর রক্তাক্ত স্ত্রীকে তীরে নিয়ে আসেন মার্ক। সেখানেই প্রাথমিক চিকিৎসার পর খবর দেওয়া হয় পুলিশে। পরে জখম যুবতীকে এয়ারলিফ্ট করে সিডনির হাসপাতালে ভর্তি করে পুলিশ। তাঁর ডান পায়ে অস্ত্রোপচার হয়েছে।

ঘটনা জানাজানি হতেই এলাকায় নায়কের সম্মান পাচ্ছেন মার্ক। যদিও তিনি নিজে বলেছেন, অন্য যেকোনো স্বামীর মতোই স্ত্রীর প্রতি কর্তব্যের খাতিরেই তিনি ওই কাজ করেছেন।

নিউ সাউথ ওয়েলস কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, চিকিৎসাকর্মীরা পৌঁছানোর আগেই ডয়েলকে প্রয়োজনীয় প্রাথমিক সেবা দেন সৈকতে থাকা লোকজন। পরে তাঁকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয় এবং তাঁর অবস্থা এখন স্থিতিশীল। স্থানীয় প্রশাসন জানিয়েছে, গত এক মাসের মধ্যে এটি অস্ট্রেলীয় উপকূলে তৃতীয়বার হাঙরের হামলার ঘটনা।

সূত্র : আজকাল, সিএনএন।