আজ ২০শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ৫ই ডিসেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

রোগী না থাকায় উহান থেকে সরিয়ে ফেলা হচ্ছে অস্থায়ী হাসপাতাল

প্রথমবার্তা, প্রতিবেদক: করোনাভাইরাসের উৎপত্তিস্থল চীনের উহানে কোভিড-১৯ রোগী না থাকায় সরিয়ে ফেলা হচ্ছে অস্থায়ী হাসপাতালগুলো।

তথ্য বলছে, ৩ এপ্রিলের পর করোনায় কোনো মৃত্যু দেখেনি চীন। যদিও বিচ্ছিন্নভাবে শনাক্ত হচ্ছেন কেউ কেউ। তাই অর্থনীতির গতি বাড়াতে পর্যটন শিল্পের ওপর গুরুত্ব দিচ্ছে শি জিন পিং সরকার।

করোনার প্রথম সংক্রমণ ধরা পড়া উহান শহরে ১০ মার্চ থেকে নেই কোনো রোগী। তাই গুটিয়ে নেয়া হচ্ছে অস্থায়ী করোনা হাসপাতালগুলো। আগের রূপে ফিরছে কমিউনিটি সেন্টার, কনফারেন্স রুম, হোটেল বা বড় বড় ভবনগুলো।

কর্তৃপক্ষ বলছে, ২০২১ সালের মার্চ পর্যন্ত অস্থায়ী মাত্র চারটি হাসপাতাল রেখে বাকি গুলো সরিয়ে ফেলা হচ্ছে। পরিস্থিতি অনেকটা স্বাভাবিক হওয়ায় নেয়া হয়েছে এমন সিদ্ধান্ত।

এদিকে, পরিস্থিতি মোকাবিলা করে দ্রুতই পর্যটন শিল্পে ঘুরে দাড়াতে চায় বেইজিং। তাই প্রাকৃতিক সম্পদ রক্ষণাবেক্ষণের ওপর গুরুত্ব দিচ্ছে শি জিনপিং সরকার।

শি জিনপিং বলেছেন, প্রাকৃতিক সম্পদ আমাদের সবচেয়ে বেশি মূল্যবান সম্পদ। এসব ধ্বংস করা থেকে আমাদের বিরত থাকা উচিৎ। পাহাড়-বন নষ্ট করে কোনো ভাবেই কিছু করতে চাই না। জীব বৈচিত্র্য রক্ষায় যা অমূল্য সম্পদ।

উল্লেখ্য, চীনে করোনায় মারা গেছে সাড়ে চার হাজার মানুষ। ৩ এপ্রিলের পর থেকে নেই কোনো মৃত্যুর রেকর্ড।