আজ ১৬ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১লা ডিসেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

অপরাধীদের তালিকায় ক্ষুদিরামের ছবি, বিতর্কিত ভারতীয় ওয়েব সিরিজ

প্রথমবার্তা, প্রতিবেদক: ভারতবর্ষের স্বাধীনতা আন্দোলনের অন্যতম মুখ, কনিষ্ঠতম বিপ্লবী ক্ষুদিরাম বসুর ছবি দেখানো হলো থানার সন্ত্রাসবাদীদের তালিকায়। জি-ফাইভের ওয়েব সিরিজ ‘অভয় টু’-র এই দৃশ্যের ছবি প্রকাশ্যে আসতেই শুরু হয় বিতর্ক। চূড়ান্ত সমালোচনার মুখে পড়ে জনপ্রিয় সিরিজ এবং ওটিটি প্ল্যাটফর্মটি।

১৯০৮ সালের ১১ আগষ্ট ঠিক ১৮ বছর ৭ মাস ১১ দিন বয়সে ফাঁসি হয় বিপ্লবী ক্ষুদিরাম বসুর। ভারতবর্ষের স্বাধীনতার জন্য ব্রিটিশদের বিরুদ্ধে আন্দোলন করে প্রাণ দিয়েছিলেন কনিষ্ঠতম এই বিপ্লবী। তার মৃত্যুতেই স্বাধীনতা সংগ্রাম আরও তীব্র হয়। সৈয়দ নাজিয়া হাসান নামের এক প্রোফাইলে ‘অভয় টু’-র একটি দৃশ্যের ছবি টুইট করা হয়েছে। যেখানে দেখা যায়, থানায় বসে জিজ্ঞাসাবাদ করছেন পুলিশ অফিসার অভয় প্রতাপ সিং ওরফে কুণাল খেমু। তার পাশের অপরাধীদের আঁকা ছবি টাঙানো বোর্ডে ছিল ক্ষুদিরাম বসুর ছবিও। অর্থাৎ, তাকে একজন অপরাধী হিসাবে দেখানো হয়।

টুইটে ছবিটি শেয়ার করার পাশাপাশি লেখা হয়, ‘বাঙালি বিপ্লবী ক্ষুদিরাম বসু জি-ফাইভের ওয়েব সিরিজ ‘অভয় টু’-তে পলাতক অপরাধীর তালিকায়। (অবশ্য সিবিএসই কিংবা আইসিএসই-র শিক্ষার্থীরা চিনতে পারবেন না।) তবে এখানে যদি আন্নাদুরাই, এমজি রামচন্দ্রণ কিংবা এনটি রামা রাওয়ের ছবি থাকত তাহলে দাক্ষিণাত্য কতটা ক্ষোভে ফেটে পড়ত বলুন তো!’

ঘটনা প্রকাশ্যে আসতেই সোশ্যাল মিডিয়ায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন অসংখ্য ব্যবহারকারী। টুইটারে ‘ব্যানজি৫’ হ্যাশ ট্যাগ দিয়ে একের পর এক পোস্ট করে চলেছেন প্রতিবাদীরা। যদিও এবিষয়ে এখনও পর্যন্ত পরিচালক কেন ঘোষ কিংবা মুখ্য চরিত্র কুণাল খেমুর পক্ষ থেকে কোনও প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি।