আজ ১৩ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৮শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

পরিকল্পিত খুন, আমাকে মুখ না খোলার জন্য হুমকি দেওয়া হচ্ছে!

প্রথমবার্তা, প্রতিবেদক: ‘কিছুদিন আগেই আমার বাড়িতে মধ্যরাতে অজ্ঞাতপরিচয় তিন-চার ব্যক্তি আসেন। আমাকে হুমকি দিয়েছে, সুশান্ত আত্মহত্যা করেছে বলতেই হবে। নইলে আমারও ক্ষতি হতে পারে’- সম্প্রতি এমনই অভিযোগ করেছেন সুশান্তের বন্ধু গণেশ।তিনি আরও বলেছেন, মুম্বাই পুলিশের কাছে তিনি ফোন করে ঘটনাটি জানানোর পরও মুম্বাই পুলিশ কোনও রকম ব্যবস্থা নিতে অস্বীকার করে।

কিছুদিন আগেই তিনি মিডিয়ায় বলেছিলেন, ‘সুশান্তকে পরিকল্পিত ভাবে খুন করা হয়েছে’। আর তারপরই তার বাড়িতে হামলা করে ওই অজ্ঞাত পরিচয় ব্যক্তিরা।গণেশ দাবি করেছেন, ‘মুম্বাই আসার পর থেকেই তিনি সুশান্তকে চিনতেন। তার বিশ্বাস দিশা সালিয়ানের মৃত্যুর সঙ্গে যোগসূত্র রয়েছে সুশান্তের।

কারণ সুশান্ত দিশার মৃত্যু-রহস্য জানতেন এবং এরপর তিনি একটি সাংবাদিক সম্মেলন করার কথাও জানিয়েছিলেন। আর এখান থেকে আটকাতেই সুশান্তের খুনিরা খুন করে দিশাকে। কারণ তারা চায়নি, কোনও প্রকার তথ্য ফাঁস হোক।

খুনিরা ভালো করেই বুঝতে পেরেছিল সুশান্ত বেঁচে থাকলে তাদের কতটা অসুবিধা হবে। গণেশের আরও দাবি তিনি জানেন কারা খুন করতে পারে সুশান্তকে’। তার সেই বক্তব্যই এখন ভাইরাল সোশ্যাল মিডিয়ায়।গণেশ একটি বিবৃতি দিয়ে জানিয়েছেন, ওই অজ্ঞাতপরিচয় ব্যক্তিরা তাকে হুমকিই শুধু নয়, গালাগালিও দিয়েছে। সেই সঙ্গে সাবধান করেছে, আবার যেন মিডিয়ায় মুখ না খোলে।

কোনও ভাবেই যেন না বলেন সুশান্তকে পরিকল্পনা করে খুন করা হয়েছে। অযথা সেলিব্রিটি সাজার চেষ্টা না করার জন্যই হুংকার দেওয়া হয়েছে গণেশকে।গত ১৪ জুন সুশান্তের মৃত্যুর পর গতমাসে তার বাবা কে কে সিং রিয়া চক্রবর্তী ও তার পরিবারের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করেন।

সেখানে রিয়ার বিরুদ্ধে আত্মহত্যায় প্ররোচনা দেওয়া এবং সুশান্তের অ্যাকাউন্ট থেকে টাকা সরিয়ে নেওয়ার অভিযোগ জানিয়েছিলেন। সেই অভিযোগের ভিত্তিতেই চলছে তদন্ত।

বিতর্কের এই পরিবেশেই সুশান্তের ভক্তরা এবার দাবি তুললেন, সুশান্তকে মারার জন্যে স্টান গানের ব্যবহার করা হয়েছিল। তার এক ভক্ত এর জন্যে অভিনেতার প্রেমিকা রিয়া চক্রবর্তী এবং শিব সেনা যুবদলের প্রধান তথা মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরের ছেলে আদিত্য ঠাকরেকে দোষীর কাঠগড়ার দাঁড় করিয়েছেন। সূত্র : এই সময়।