আজ ১১ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৬শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

আন্তর্জাতিক ডিজাইন প্রতিযোগিতায় হাবিপ্রবি শিক্ষার্থী হৃদয়ের সফলতা

প্রথমবার্তা, প্রতিবেদকঃ হাজী মোহাম্মাদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (হাবিপ্রবি) স্থাপত্য বিভাগের ১৭ ব্যাচের শিক্ষার্থী হাসিবুল আলাম হৃদয় ভারতে অনুষ্ঠিত এক আন্তর্জাতিক ডিজাইন প্রতিযোগিতায় ‘কমেন্ডেশন প্রাইজ’ লাভ করেছেন।প্রায় দু’মাস আগে ভারতের ডিজাইন ও নগর অধ্যয়ন বিষয়ক শিক্ষা ও প্রশিক্ষণ প্রতিষ্ঠান “সার্চ ফর ট্রাস্ট” ‘সুন্দর বাড়ি’ শীর্ষক একটি আন্তর্জাতিক ডিজাইন প্রতিযোগিতার আয়োজন করে।

 

এতে বাংলাদেশ থেকে বুয়েট, সাস্ট, হাবিপ্রবি, আহসানউল্লাহ বিশ্ববিদ্যালয়সহ পার্শ্ববর্তী কয়েকটি দেশের ও ভারতের ২৯৭টি দলের সমন্বয়ে প্রায় ৮৫০জন প্রতিযোগী অংশগ্রহণ করেন। শনিবার প্রতিযোগিতার চূড়ান্ত ফলাফল অনলাইনে প্রকাশিত হয়।সারাবছরই উপকূল অঞ্চলগুলোতে বন্যা, ঝড় সাইক্লোন সহ নানা প্রাকৃতিক দূর্যোগ লেগেই থাকে।

 

অভিজ্ঞতালব্ধ জ্ঞান দিয়ে বছর ঘুরে তা পুষিয়েও নেয় ওই অঞ্চলে বসবাসকারী মানুষেরা। যুগের পর যুগ ধরে এই লুপ টা চলে আসলেও বৈশ্বিক উষ্ণতা সহ মানবসৃষ্ট নানা কারণে প্রকৃতি তার রূপ বদলাচ্ছে প্রতিনিয়ত। একারণেই প্রতিষ্ঠানটি স্থাপত্য শিক্ষার্থীদের জন্য একটি আন্তর্জাতিক প্রতিযোগীতার আয়োজন করে।

 

তাদের মূল থিম ছিলো, সুন্দরবন উপকূলীয় একটি পরিবারের জন্য একটি ভিটেবাড়ির বিকল্প ধারণা উপস্থাপন করা যেটি হিবে স্থিতিস্থাপক, টেকসই, সৃজনশীল, সাশ্রয়ী ও বাস্তবায়নযোগ্য যা দুর্যোগের সময় মানুষ গবাদী পশুকে যথাসম্ভব নিরাপত্তা দিবে এবং দুর্যোগ পরবর্তী সময়ে খাদ্য এবং খাবার পানি সংকট মোকাবিলা সহজতর হবে, এমন একটি মডেল বাড়ি তৈরি করা.হাসিবুল আলম হৃদয় প্রথমবার্তাকে জানান, খুলনা জেলার খালিশপুর উপজেলায় আমার বাড়ি।

 

খুব কাছ থেকে আমি দূর্যোগের সময়ের পরিবেশ ও এখানকার মানুষের অবস্থা দেখে আসছি। ভাবিনি এমন পজিশনে আসবো, কিন্তু সেরা দশে স্থান পাওয়ার পর আমার মধ্যে অন্যরকম ভালোলাগা কাজ করে এরপর নিজের সর্বোচ্চটা দিয়ে চেষ্টা করেছি। দেশের বাহিরে গিয়ে নিজেকে ও প্রিয় হাবিপ্রবিকে রিপ্রেজেন্ট করতে পেরে আমি সত্যিই অনেক আনন্দিত।

 

সহকারী অধ্যাপক আবু তোয়াব মো. শাহরিয়ার স্যারসহ আমার বিভাগের শিক্ষকদের প্রতি আমি বিশেষভাবে কৃতজ্ঞ, তাঁদের সহযোগিতা ছাড়া এটি সম্ভব ছিলো না।