আজ ১৯শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ৪ঠা ডিসেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

সালমানকে হত্যাচেষ্টা; এক বন্দুকধারী গ্রেপ্তার

প্রথমবার্তা, প্রতিবেদকঃ কুখ্যাত গ্যাংস্টার লরেন্স বিষ্ণোইয়ের গ্যাংয়ের এক শার্প শুটার গ্রেপ্তার হয়েছে। গত ১৫ আগস্ট পুলিশ তাকে উত্তরাখণ্ড থেকে বন্দুকসহ গ্রেপ্তার করেছে। জানা গেছে, সে বলিউড অভিনেতা সালমান খানকে খুন করার চেষ্টা করেছিল।

২৭ বছরের এই শার্প শুটারের নাম রাহুল ওরফে সাঙ্গা ওরফে বাবা ওরফে সুন্নি। উত্তর প্রদেশের ফরিদাবাদের বাসিন্দা প্রবীণ নামে এক রেশন ডিলারকে খুনের দায়ে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। গত ২৪ জুন প্রবীণকে খুন করেছিল রাহুল।

রাহুলকে জিজ্ঞাসাবাদ করে পুলিশ সালমানকে খুনের পরিকল্পনার চাঞ্চল্যকর তথ্য পায়। বেশ কিছুদিন ধরেই বলিউড তারকা সালমান খানকে খুনের ষড়যন্ত্র করছে এ বন্দুকবাজ।

গ্যাংস্টার লরেন্স বিষ্ণোইয়ের নির্দেশেই এ খুনের পরিকল্পনা করে বলে পুলিশি জেরায় জানিয়েছে রাহুল। এমনকি লরেন্স বিষ্ণোইয়ের কথামতো মুম্বাইয়ে সালমানের বাড়িতে গিয়ে রেকিও করে এসেছে সে।

বর্তমানে লরেন্স বিষ্ণোই রাজস্থানের একটি জেলে বন্দি। ডিসিপি হেডকোয়ার্টার রাজেশ দুগ্গাল জানিয়েছেন, এ বছর জানুয়ারি মাসে মুম্বাই যায় রাহুল। সেখানে বান্দ্রায় সালমান খানের বাড়ির আশপাশে দিন দুয়েক ছিলও সে।

লরেন্স বিষ্ণোই এবং এই চক্রের আরেক সদস্য সম্পত নেহরার কথামতো এই কাজ করে। এর আগে সম্পত নেহরাও সালমান খানকে মারার জন্য ২০১৮ সালের জুন মাসে রেকি করেছিল। তারপর অবশ্য সে গ্রেপ্তার হয়।

সালমান খান রাজস্থানের যোধপুরে দুটি কৃষ্ণসার হরিণ হত্যা করেছিলেন। সেই কারণেই লরেন্স বিষ্ণোই সালমানকে মেরে ফেলার চেষ্টা করেন বলে মনে করছে পুলিশ। কারণ হিসেবে বলা হয়েছে বিষ্ণোই সম্প্রদায়ে হরিণকে পূজা করার রীতি রয়েছে। হরিণ হত্যাকে এ গোষ্ঠীতে মৃত্যুদণ্ডের মতো শাস্তিযোগ্য অপরাধ মনে করা হয়।