আজ ১২ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৭শে নভেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জেসিন্ডার বিরুদ্ধে আসরে বিড়াল!

প্রথমবার্তা, প্রতিবেদকঃ করোনাভাইরাস মোকাবেলায় অভাবনীয় সাফল্য ও ক্রাইস্টচার্চের মসজিদে সন্ত্রাসী হামলার পর সরকারের গৃহীত পদক্ষেপের কারণে নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জাসিন্ডা আরডার্ন বিশ্বব্যাপী সুপরিচিত। সুপরিকল্পিতভাবে করোনাভাইরাস প্রতিরোধ করে সংক্রমণ ঠেকানোর কারণে বিশ্বব্যাপী ব্যাপক প্রশংসিত হন তিনি।

তার এসব কাজের স্বীকৃতি স্বরূপ এবার ‘নিউজিল্যান্ডার অব দ্য ইয়ার’পাওয়ার দৌঁড়ে এগিয়ে ছিলেন তিনি। তবে ওয়ালিংটনের একটি বিড়ালের কাছে হারাতে হতে পারে এই পুরস্কার।

প্রতিবছরই  নিউজিল্যান্ডে ‘নিউজিল্যান্ডার অব দ্য ইয়ার’ পুরস্কারটি দেওয়া হয়। তবে এ বছর এই পুরস্কার নিয়ে সবার আগ্রহ যেন একটু বেশিই। কারণ প্রধানমন্ত্রী জাসিন্ডা আরডার্ন ও স্বাস্থ্য অধিদফতরের ডিরেক্টর জেনারেল অ্যাশলে ব্লুমফিল্ডের মতো জনপ্রিয় ও সফল ব্যক্তিদের সঙ্গে এবার পুরস্কারের জন্য মনোনীত হয়েছে একটি বিড়ালও। টার্কিশ অ্যাঙ্গেরা জাতের এই বিড়ালটির নাম মিটেন্স।

তবে বিড়াল হলেও মিটেন্সের জনপ্রিয়তা মনোনয়নপ্রাপ্ত অন্যদের চেয়ে কম নয়। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের কল্যাণে দেশের গণ্ডি পেরিয়ে আন্তর্জাতিক অঙ্গনেও অনেক ভক্ত রয়েছে তার। তার ফেসবুক পেজে ৫০ হাজার অনুসারীও রয়েছে। ২০১৮ সালে বিড়ালটি প্রথম সবার নজরে আসে। প্রতিদিনই মিটেন্সের কার্যকলাপ সেই ফেসবুক পেজে আপলোড করা হয়। এমনকি ওয়েলিংটন মিউজিয়ামে মিটেন্সের কার্যকলাপের নানা ছবি নিয়ে একটি শাখাও খোলা হয়েছে।

আগামী ডিসেম্বর মাসে মনোনয়নপ্রাপ্তদের মধ্যে চারটি নামকে পুরস্কারের জন্য চূড়ান্তভাবে বেছে নেবেন উদ্যোক্তারা। আগামী বছর মার্চ মাসে ঘোষণা করা হবে ‘নিউজিল্যান্ড অফ দ্য ইয়ারের’নাম।

সূত্র: সিএনএন।