আজ ১৮ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ৩রা ডিসেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

কলকাতায় বাড়ির দরজায় বিনামূল্যে কভিড পরীক্ষার সুবিধা

প্রথমবার্তা, প্রতিবেদকঃ নাগরিকদের বাড়ির দরজায় এবার কভিড পরীক্ষা-পরিষেবাকে পৌঁছে দেওয়া শুরু করবে কলকাতা পৌরসভা। যা ভারতের অন্যান্য শহরে এখনো চালু হয়নি।

মহানগরের যেকোনো ওয়ার্ডের ক্লাব, সোসাইটি, পূজা কমিটি, আবাসন কমিটি পৌরসভায় আবেদন করলেই ‘মোবাইল অ্যাম্বুল্যান্স-ল্যাব’ পাঠিয়ে বিনামূল্যে করোনা পরীক্ষা হবে। অ্যান্টিজেন পরীক্ষা পদ্ধতিতে আধা ঘণ্টার মধ্যে জানিয়ে দেওয়া হবে স্বেচ্ছায় পরীক্ষা করতে আসা নাগরিকের শরীরে নোভেল করোনাভাইরাস আছে কি না।

করোনা মোকাবেলায় পাড়ায়-পাড়ায় ‘কভিড টেস্টিং টু ইওর ডোরস্টেপ’ কর্মসূচি শনিবার ঘোষণা করেন কলকাতা পৌরসভার মুখ্য প্রশাসক ও পৌরমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম
জানান, যদি শিবিরে কোনো ব্যক্তির উপসর্গ থাকা সত্ত্বেও ‘করোনা নেগেটিভ’ আসে তবে তাঁর লালারস বিনা খরচে আরটিপিসিআর পরীক্ষা করাবে পৌরসভাই। তিনি আরো দাবি করেন, দেশের মধ্যে কলকাতাই প্রথম নগর নিগম যেখানে করোনা মোকাবেলায় ‘বাড়ির দরজায় কভিড টেস্টিং’ চালু করল। এর আগে চীনের ইউহানের ধাঁচে রাজপথে রাসায়নিক দিয়ে দেশের মধ্যে প্রথম জীবাণুমুক্তকরণ করে পৌরসভা।

করোনায় মৃতের সংখ্যা কমাতে এবার শহরে বাসিন্দাদের কো-মর্বিডিটি’র তালিকা তৈরির কাজও শুরু করছে পৌরসভা। স্বাস্থ্য দপ্তরের সহযোগিতা নিয়ে দুই মাসের মধ্যে কর্মী পাঠিয়ে এই সমীক্ষা তথা তালিকার কাজ সম্পূর্ণ করা হবে বলে এদিন ঘোষণা দেন জনাব ফিরহাদ হাকিম।

তাঁর কথায়, ‘ডায়াবেটিস, উচ্চ রক্তচাপ, কিডনির অসুখ, মেদবাহুল্য ও বার্ধক্যজনিত অসুস্থতার জন্য যাঁদের ‘কো-মর্বিডিটি’ রয়েছে সেটা জানা থাকলে কভিড আক্রান্ত হলেই দ্রুত চিকিৎসায় সুবিধা হবে। বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন, শহরে আনুষঙ্গিক অসুস্থতা অর্থাৎ কো-মর্বিডিটি জানলে করোনায় মৃত্যুর হার অনেক কমে যাবে।’