আজ ১৯শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ৪ঠা ডিসেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

মানুষ মেয়েদের বুক দেখা বন্ধ করুক : স্বস্তিকা

প্রথমবার্তা, প্রতিবেদকঃ সম্প্রতি প্রকাশ হয়েছে কলকাতার হট সেনসেশন অভিনেত্রী স্বস্তিকা মুখার্জী অভিনীত নতুন ছবি ‘তাসের ঘর’-এর পোস্টার। সেখানে ব্লাউজের সঙ্গে কালো ব্রা-তে ধরা দেন নায়িকা। তবে ব্রা’র স্ট্র্যাপ দুটি তার ব্লাউজ টপকে বাইরে বেরিয়ে ছিল। তাই নিয়ে সরগরম হয়ে যায় নেটপাড়া।

 

একের পর এক বাজে মন্তব্য ছুটে আসতে থাকে স্বস্তিকার দিকে।একজন নায়িকাকে উদ্দেশ্য করে ইনস্টাগ্রামে লেখেন, ‘ব্লাউজের উপর দিয়ে যদি ব্রা’র ফিতা দেখা যায়, তাহলে সেটা পরার দরকার কী? আরেকজন লেখেন, ‘কালো ব্রা’তে তোমাকে খুবই বাজে লাগছে স্বস্তিকা।’ এরকম আরও বহু মন্তব্য। সঙ্গে সঙ্গে জবাবও দিয়ে দেন নায়িকা।

 

লেখেন, ‘এখন সময় খুব খারাপ চলছে। তাই আপাতত বাজে জিনিসই দেখুন।’কিন্তু এই জবাবটা কি না দিলে হতো না- সম্প্রতি একটি সাক্ষাৎকারে এমন প্রশ্নই করা হয় স্বস্তিকাকে। প্রশ্ন শুনেই ফোঁস করে ওঠেন অভিনেত্রী। বলেন, ‘কেন উত্তর দেব না বলুন তো? সব সময় ছাড়ব কেন? সারাজীবন সব ছেড়েই রাখব? কী হবে তাতে। মানুষ কথা লিখবে লিখুক।

 

কিন্তু একটা সচেতনতা তো তৈরি করা উচিত।’নায়িকা প্রশ্ন তোলেন, ‘মানুষ কী জানে না যে, মেয়েরা কাপড়ের নিচে ব্রা-পেন্টি এসব পরে? এসব না পরে রাস্তায় বের হলে সেই লোকেরাই তো ফ্যাল ফ্যাল করে তাকিয়ে দেখবে। তাই অন্তর্বাস পরতে হয়! মেয়েদের দোষ না ধরে সমাজ বদলাক না। মানুষ মেয়েদের বুকের দিকে তাকানো বন্ধ করুক!

 

তাহলে মেয়েদেরও আর অন্তর্বাস পরতে হবে না।’ছেলেদের প্রসঙ্গ তুলে স্বস্তিকা বলেন, ‘শুধু মেয়েদের লুকিয়ে রেখে জামাকাপড় পরতে হবে। আর ছেলেরা দারুণ শরীর তৈরি করে কখনও শুধু আন্ডারওয়্যার পরবে, কখনও কোমরের নীচে প্যান্ট পরবে, তা নিয়ে আদিখ্যেতা করবে। অন্যদিকে আমার ছবির পোস্টারে মানুষ শুধু কালো অন্তর্বাস দেখল?

 

আর কিছু তাদের চোখে পড়ল না!’অভিনেত্রী আরও বলেন, ‘মেয়েরা প্যান্টি পরে, পিরিয়ডের সময় প্যাড ব্যবহার করে, এগুলো অত্যন্ত স্বাভাবিক ঘটনা। সরকার বলছে কনডম ব্যবহার করতে। অথচ মানুষ কনডম কেনে লুকিয়ে। এই উল্টো দিকের জীবন অভ্যাস বন্ধ করুক মানুষ! মানুষের মতো লুকিয়ে, ফিসফিস করে আমি কিছু করি না।’