আজ ১৭ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২রা ডিসেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

কানাডার শেষ অক্ষত তুষারপ্রাচীরটি ধসে পড়েছে

প্রথমবার্তা, প্রতিবেদকঃ কানাডীয় সুমেরু সাগরে উষ্ণায়নের ভয়াবহ প্রভাবে ভেঙে পড়ছে শেষ অক্ষত তুষারপ্রাচীরটি। জুলাইয়ের শেষে মাত্র দুই দিনের মধ্যেই অক্ষত মেরু তুষারপ্রাচীরটির প্রায় ৪০ শতাংশ গলে গেছে।

দ্য কানাডিয়ান আইস সার্ভিস জানিয়েছে, স্বাভাবিকের চেয়ে বেশি তাপমাত্রার কারণে এবং হাওয়া ও খোলা জল থাকায় হিমবাহটি ভেঙে গেছে। এলসমেয়ার দ্বীপের কাছে অবস্থিত ছিল এই মিলনে আইসশেলফ।

অটোয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজ্ঞানীরা জানিয়েছেন, গোটা শহরের মতো সাইজের একেকটা বরফের টুকরা হয়ে ভেঙে পড়ছে তুষারপ্রাচীরটি। প্রায় ৮০ বর্গকিলোমিটার এলাকাজুড়ে ভেসে ছিল ওই মেরু তুষারপ্রাচীর।

গত ৩০ বছরের তুলনায় দ্রুতগতিতে তাপমাত্রা বেড়ে যাওয়ায় এই প্রাচীর ভেঙে পড়েছে বলে মনে করছেন বিজ্ঞানীরা। এখন এত বড় মেরু তুষারপ্রাচীর বিশ্বে আর নেই।

বিশ্ব উষ্ণায়নের প্রভাবে যে হিমবাহ গলতে শুরু করেছে, সেই তথ্য অনেক আগেই দিয়েছেন বিজ্ঞানীরা। সমুদ্রের পানির স্তর বাড়লে ভবিষ্যৎ কী হবে, তা নিয়ে আশঙ্কাও বেশ কয়েক বছর ধরে মাথাচাড়া দিচ্ছে। সেই আশঙ্কায় নয়া মাত্রা যোগ করল সুমেরুর সাম্প্রতিক পরিস্থিতি। সেখানকার সবচেয়ে পুরনো, পুরু বরফের স্তরেও এবার ফাটল ধরতে শুরু করেছে।