আজ ১০ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৫শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

ঘূর্ণিঝড় ও করোনা নিয়ে কর্মকর্তাদের নির্দেশনা কিম জং উনের

প্রথমবার্তা, প্রতিবেদকঃ নিজের কাঁধ থেকে দেশের শাসনভার হালকা করতে সম্প্রতি বোনের হাতে রাষ্ট্রের বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব তুলে দিয়েছেন উত্তর কোরিয়ার শাসক কিম জং উন। ক্ষমতা হস্তান্তরের এ ঘটনার পর ফের কিমের মৃত্যু গুজব ছড়িয়ে পড়ে। তবে সব গুঞ্জন উড়িয়ে আবারো জনসম্মুখে এলেন কিম জং উন।

 

মঙ্গলবার পলিটব্যুরোর এক সভায় করোনাভাইরাস ও দেশটির দিকে ধেয়ে আসা সম্ভাব্য টাইফুন ‘বাভি’ মোকাবেলায় সরকারের ঊর্ধ্বতন ব্যক্তিবর্গকে গুরুত্বপূর্ণ বৈঠকে নির্দেশনা দিয়েছেন তিনি। পলিটব্যুরোর সভায় কিম বলেন,’মারাত্মক এই ভাইরাস রুখতে আমাদের রাষ্ট্রের প্রচেষ্টায় কিছু ত্রুটি রয়েছে।’

 

বুধবার বিবিসি এক প্রতিবেদনে জানায়, মহামারি করোনাভাইরাস ও ধেয়ে আসা সম্ভাব্য টাইফুন ‘বাভি’ মোকাবেলায় সরকারের ঊর্ধ্বতন ব্যক্তিদের গুরুত্বপূর্ণ বৈঠকে নির্দেশনা দিয়েছেন বলে দেশটির সরকার নিয়ন্ত্রিত সংবাদমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে।

 

গত শুক্রবার দক্ষিণ কোরিয়ার সাবেক এক কূটনীতিক কোরিয়া হেরাল্ডকে বলেন, চীনের অজ্ঞাত একটি সূত্র তাঁকে জানিয়েছে, কিম ‘কোমায় আছেন’। তবে তাঁর এখনো মৃত্যু হয়নি। এরপর কয়েকদিন ধরে যুক্তরাজ্যের মিরর ও যুক্তরাষ্ট্রের নিউ ইয়র্ক পোস্টসহ আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমে খবর প্রকাশিত হচ্ছিল, কিমের স্বাস্থ্য ভালো নেই। মৃত্যু হয়ে থাকতে পারে তাঁর।

 

সম্প্রতি বোন কিম ইয়ো জংয়ের হাতে বৈদেশিক সম্পর্ক নিয়ন্ত্রণসহ আরো কিছু গুরুত্বপূর্ণ বাড়তি দায়িত্ব দেওয়ার কারণে কিমের এবারের মৃত্যুর গুঞ্জন বেশি জোরালো ছিল। সব অনিশ্চয়তা ভণ্ডুল করে দিয়ে ফের জনসম্মুখে হাজির হলেন কিম। উত্তর কোরিয়ার রাষ্ট্র নিয়ন্ত্রিত সংবাদমাধ্যম কেসিএনএ জানিয়েছে, ক্ষমতাসীন ওয়ার্কার্স পার্টির সভায় করোনাভাইরাস পরিস্থিতি নিয়ে দিক নির্দেশনা দেন তিনি।

সূত্র : বিবিসি।