আজ ১৬ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১লা ডিসেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

বিয়ের জন্য পাত্র খুঁজছেন অভিনেত্রী শ্রীলেখা মিত্র

প্রথমবার্তা, প্রতিবেদকঃ ভারতীয় টিভি চ্যানেল জি-বাংলার জনপ্রিয় কমেডি শো ‘মীরাক্কেল’। এখানে মীর আফসার আলী খানের উপস্থাপনায় পরাণ বন্দ্যোপাধ্যায়, রজতাভ দত্তসহ বিচারক হিসেবে প্রায় দশ বছর ধরে দেখা গেছে শ্রীলেখা মিত্রকে। ওপার বাংলার পাশাপাশি এপার বাংলাতেও তুমুল জনপ্রিয় এ অনুষ্ঠানটি।

নতুন খবর হলো আসছে সিজন থেকে শ্রীলেখার পরিবর্তে আসবেন অন্য কেউ। মীরাক্কেল থেকে বাদ পড়েছেন তিনি। এ অভিনেত্রী নিজেই ফেসবুকে এক স্ট্যাটাসে এ কথা জানিয়েছেন। মীরাক্কেল থেকে বাদ পড়ে বলা চলে ভেঙে পড়েছেন তিনি।

এদিকে শ্রীলেখার বাদ পড়ার প্রতিবাদ জানাচ্ছেন মীরাক্কেল ভক্তরা। এমনকি বিভিন্ন সিজনের অনেক প্রতিযোগীরাও শ্রীলেখা বাদ পড়ায় প্রতিবাদ জানিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে তাদের মতামত জানিয়েছেন।

এর ভিড়ে শ্রীলেখা দিলেন বিয়ের ঘোষণা। তিনি বিয়ের জন্য সুপাত্র খুঁজছেন বলে বুধবার (২৬ আগস্ট) দিবাগত রাতে ফেসবুকে এক স্ট্যাটাসে জানালেন। অবশ্য এই পোস্ট তার মজা করেই দেয়া।

সেখানে ‘হঠাৎ বৃষ্টি’খ্যাত এই অভিনেত্রী লেখেন, ‘ভাবছি নিজের জন্য পাত্র দেখা শুরু করবো।’ আর তো মজা করে তিনি বললেন, ‘ইন্ডাস্ট্রি কাজ দেবে না। অতএব সুপাত্র আছে নাকি চেনা?’

এই পোস্টের নিচে শ্রীলেখার পরিচিত অনেকেই বেশ মজা করে মন্তব্য করছেন। রসিক শ্রীলেখাও তার জবাব দিচ্ছেন বেশ জমিয়ে।

তবে এ স্ট্যাটাসে মজা করলেও ইশারায় তিনি ইন্ডাস্ট্রিতে তার বিরুদ্ধে চলমান ষড়যন্ত্রের ইঙ্গিত দিয়েছেন। স্পষ্ট করে কিছু না বললেও জানা গেছে হিন্দু-মুসলিম সম্পর্ক, মুখ্যমন্ত্রীর পদ নিয়ে বিতর্কিত কথা বলায় তাকে মীরাক্কেল থেকে সরানো হয়েছে। আগামীতে এসব কারণে তাকে কাজহীন হতে হবে বলেই মনে করছেন শ্রীলেখা ও তার বন্ধু-শুভাকাঙ্ক্ষীরা।

প্রসঙ্গত, ব্যক্তি জীবনে শ্রীলেখা ভালোবেসে বিয়ে করেছিলেন শিলাদিত্যকে। তাদের ঘরে রয়েছে এক কন্যাসন্তান। তবে দীর্ঘ দিনের সংসার জীবনের ইতি টেনে মেয়েকে নিয়ে আলাদা থাকছেন শ্রীলেখা।