আজ ১০ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৫শে নভেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

আ.লীগ নেতাকে পুতা দিয়ে হত্যাচেষ্টা, স্ত্রী গ্রেফতার

প্রথমবার্তা, প্রতিবেদকঃ মাদারীপুরে জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ইলিয়াস আহম্মেদ হাওলাদারকে হত্যাচেষ্টা মামলায় স্ত্রী মিলি আক্তারকে (৪২) গ্রেফতার করেছে জেলার গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)।

 

শুক্রবার সন্ধ্যায় রাজধানীর মিরপুর-২ এলাকার একটি বাসা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। পরে মিলিকে মাদারীপুর পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে নিয়ে আসা হয়। পুলিশ ও মামলার সূত্র জানায়, চলতি মাসের ২০ তারিখ ভোরে ঘুমন্ত অবস্থায় ইলিয়াস আহম্মেদকে মসলা বাটার শিল (নোড়া/পুতা) দিয়ে মাথায় গুরুতর আঘাত করেন স্ত্রী মিলি আক্তার।

 

গুরুতর অবস্থায় উদ্ধার করে তাকে মাদারীপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। অবস্থার অবনতি হলে তাকে পাঠানো হয় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে। এরপর তিনি ঢাকার একটি বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসা নেন।

 

এ ঘটনায় ২৩ আগস্ট ইলিয়াস নিজে বাদী হয়ে সদর মডেল থানায় একটি হত্যাচেষ্টা মামলা করেন। মামলায় স্ত্রী মিলিকে একমাত্র আসামি ও অজ্ঞাতনামা আরও পাঁচজনের নাম উল্লেখ করা হয়েছে।

 

জেলার গোয়েন্দা পুলিশের পরিদর্শক ও তদন্ত কর্মকর্তা রাজীব হোসেন বলেন, ‘স্বামীকে হত্যাচেষ্টা মামলায় স্ত্রীকে আমরা ঢাকা থেকে গ্রেপ্তার করেছি। তিনি ডিবি পুলিশের হেফাজতে আছেন। শনিবার মিলিকে আদালতে তোলা হবে।’

 

এই পুলিশ কর্মকর্তা আরও বলেন, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে মিলি জানিয়েছেন, দাম্পত্য জীবনে কলহ, তর্কবিতর্কের কারণেই নোড়া (পুঁতা) দিয়ে স্বামীকে মাথায় আঘাত করেন। আঘাত করেই তিনি ঢাকায় এসে একজনের বাসায় আত্মগোপনে ছিলেন।

 

মাদারীপুর সদর হাসপাতালের চিকিৎসক অখিল সরকার ঘটনার দিনই জানিয়েছিলেন, সকাল সাড়ে সাতটার দিকে গুরুতর আঘাত নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হন ইলিয়াস। তার মাথার তিনটি স্থানে আঘাত ছিল।

 

হাতেও আঘাতের চিহ্ন আছে। মাথায় বেশ কয়েকটি সেলাই দিতে হয়েছে। পরে বেলা সাড়ে ১১টার দিকে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।