আজ ১১ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৬শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

লেবাননের নতুন প্রধানমন্ত্রী হচ্ছেন রাষ্ট্রদূত আদিব?

প্রথমবার্তা, প্রতিবেদকঃ রাসায়নিকের মজুদ থেকে বৈরুত বন্দরে ভয়াবহ বিস্ফোরণের পর চরম সংকটে পড়া লেবাননের নতুন প্রধানমন্ত্রী হতে যাচ্ছেন জার্মানিতে নিযুক্ত দেশটির রাষ্ট্রদূত মুস্তফা আদিব। লেবাননের সাম্প্রদায়িক রাজনৈতিক ব্যবস্থায় দেশটির প্রধানমন্ত্রী হবেন একজন সুন্নি মুসলিম। আর এরই মধ্যেই দেশটির প্রধান সুন্নি রাজনৈতিক দল ফিউচার মুভমেন্ট আদিবকে প্রধানমন্ত্রী করায় সমর্থন দিয়েছে।

 

চলতি মাসের প্রথমদিকে রাজধানী বৈরুতে ভয়াবহ বিস্ফোরণে প্রায় ১৯০ জনের প্রাণহানি ও তিন লাখেরও বেশি মানুষ বাস্তুচ্যূত হওয়ার পর ব্যাপক সমালোচনা ও আন্দোলনের মুখে পদত্যাগ করতে বাধ্য হন হাসান দিয়াবের নেতৃত্বাধীন সরকার। দেশটির প্রধান বন্দর বিধ্বস্ত হওয়ায় ১৯৭৫-৯০ সালের গৃহযুদ্ধ পরবর্তী সবচেয়ে বড় অর্থনৈতিক সংকটের মুখে পড়েছে লেবানন। এমন কঠিন সংকটাপন্ন মুহূর্তেই দায়িত্ব যাচ্ছে মুস্তফা আদিবের হাতে।

 

শেষমুহূর্তে কোনো জটিলতা না হলে সোমবার ফরাসি প্রেসিডেন্ট এমান্যুয়েল ম্যাক্রোঁর বৈরুত সফরের আগেই লেবানিজ প্রধানমন্ত্রী হিসেবে নাম ঘোষণা হতে পারে আদিবের।

 

সাবেক সরকারপ্রধান সাদ হারিরির নেতৃত্বাধীন দ্য ফিউচার মুভমেন্ট রোববার সংসদীয় জোটের বৈঠকে এ রাষ্ট্রদূতের প্রতি সমর্থন জানিয়েছে। শিয়া রাজনৈতিক দল হিজবুল্লাহ এবং তাদের মিত্র আমাল মুভমেন্টও মুস্তফা আদিবকে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে মেনে নিচ্ছে বলে জানিয়েছেন দেশটির এক শীর্ষ শিয়া নেতা।

 

হিজবুল্লাহ সমর্থিত খ্রিস্টান প্রেসিডেন্ট মিশেল আউনকে সোমবার সংসদ সদস্যদের মধ্যে সর্বাধিক সমর্থন নিয়ে নতুন প্রধানমন্ত্রী মনোনীত করতে হবে। এরপরই শুরু হবে নতুন সরকার গঠনের প্রক্রিয়া। নতুন প্রশাসন গঠিত না হওয়া পর্যন্ত তত্ত্বাবধায়কের দায়িত্ব থাকছে দিয়াব সরকারে হাতেই।

সূত্র : আরব নিউজ।