আজ ১৪ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৯শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

স্বাধীনতাসংগ্রামে অসাধারণ ভূমিকা ছিল প্রণব মুখার্জির

প্রথমবার্তা, প্রতিবেদক:  বাংলাদেশের স্বাধীনতাসংগ্রামে অসাধারণ ভূমিকা রেখেছিলেন ভারতের প্রয়াত রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখার্জি। এ ছাড়া তিনি বঙ্গবন্ধু ও তাঁর পরিবারের অত্যন্ত আপনজন ছিলেন।শনিবার সকালে চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবের এস রহমান মিলনায়তনে ভারতের সাবেক রাষ্ট্রপতি প্রয়াত প্রণব মুখার্জির শোকসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য দিতে গিয়ে এসব কথা বলেছেন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় প্রেসিডিয়াম সদস্য ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন।

 

প্রেস ক্লাব সভাপতি আলী আব্বাসের সভাপতিত্বে আয়োজিত শোকসভাটি পরিচালনা করেন যুগ্ম সম্পাদক নজরুল ইসলাম। স্বাগত বক্তব্য দেন সাধারণ সম্পাদক ফরিদ উদ্দিন চৌধুরী।মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন আরো বলেন, একাত্তরের মহান মুক্তিযুদ্ধে তৎকালীন কংগ্রেস নেতা হিসেবে বাংলাদেশের পাশে থেকে অসাধারণ ভূমিকা রেখেছিলেন প্রণব মুখার্জি।

 

দেশ স্বাধীন হওয়ার পরও তিনি দেশের বিভিন্ন সংকটের সময় বন্ধু হিসেবে বাংলাদেশের পাশে ছিলেন।তিনি মুক্তিযুদ্ধের ট্রেনিং ক্যাম্পের স্মৃতিচারণা করে বলেন, যুদ্ধ শুরু হওয়ার পর আমাদের ভারতে প্রবেশ করতে হয়, বিভিন্ন এলাকায় ট্রেনিংয়ের জন্য ক্যাম্প করতে হয়। তখন প্রণব মুখার্জি আমাদের নানাভাবে সহায়তা করেছিলেন।

 

শুধু মুক্তিযুদ্ধ নয়, পঁচাত্তরে বঙ্গবন্ধুকে সপরিবারে হত্যার পর প্রণব মুখার্জি শেখ হাসিনা ও শেখ রেহানাকে ভারতে নির্বাসিত থাকাকালীন সার্বিক সহযোগিতা করেছিলেন। পরবর্তী সময়ে শেখ হাসিনা ও শেখ রেহানা দেশে ফেরার পরও নিয়মিত তাঁদের খোঁজ রাখতেন, পাশে ছিলেন। যেকোনো সংকটকালে  প্রণব মুখার্জি পাশে থেকে সাহস জুগিয়েছেন।

 

প্রধানমন্ত্রীর উদ্ধৃতি দিয়ে ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন প্রণব মুখার্জির আত্মজীবনী গ্রন্থ থেকে বলেন, ২০০৮ সালে তৎকালীন সেনাপ্রধান ভারত সফরে গেলে প্রণব মুখার্জি শেখ হাসিনা এবং খালেদা জিয়াসহ বাংলাদেশের রাজনৈতিক নেতাদের অন্যায়ভাবে আটকে না রাখার জন্যও অনুরোধ করেছিলেন।শোকসভার শুরুতে প্রয়াত প্রণব মুখার্জির প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করা হয়।

 

শোকসভায় আরো বক্তব্য দেন চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবের সিনিয়র সহসহভাপতি সালাহউদ্দিন মো. রেজা, চট্টগ্রাম সাংবাদিক ইউনিয়নের সাবেক সভাপতি এম নাসিরুল হক ও মোস্তাক আহমদ, চট্টগ্রাম সাংবাদিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ শামসুল ইসলাম, চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মহসিন চৌধুরী, বিএফইউজের সাবেক যুগ্ম মহাসচিব আসিফ সিরাজ, চট্টগ্রাম সাংবাদিক হাউজিং সোসাইটির সাবেক চেয়ারম্যান মইনুদ্দীন কাদেরী শওকত, চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবের অর্থ সম্পাদক দেবদুলাল ভৌমিক, প্রেস ক্লাবের স্থায়ী সদস্য জেড এম এনায়েত উল্লাহ এবং জাহিদুল করিম কচি প্রমুখ।