আজ ১৫ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ৩০শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

‘দক্ষ কর্মী বিদেশে পাঠালে রেমিট্যান্সের ঊর্ধ্বগতি অব্যাহত থাকবে’

প্রথমবার্তা, প্রতিবেদক: প্রবাসীকল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী ইমরান আহমদ বলেছেন, বিদেশের শ্রমবাজারে দক্ষ জনশক্তি প্রেরণের লক্ষ্যে সরকার কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রগুলোতে যুগোপযোগী ও বিশেষ চাহিদাসম্পন্ন নতুন নতুন ট্রেড চালুর পরিকল্পনা করছে।আজ রবিবার সকাল ১১টায় জুম-অনলাইনে মেহেরপুরে উপজেলা পর্যায়ে ‘বৈদেশিক কর্মসংস্থানের জন্য দক্ষতা ও সচেতনতা’ শীর্ষক এক সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় মন্ত্রী এ কথা জানান।

 

মেহেরপুরের জেলা প্রশাসক ড. মোহাম্মদ মুনসুর আলম খানের সভাপতিত্বে উক্ত সেমিনারে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন এবং প্রবাসীকল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের সচিব ড. আহমেদ মুনিরুছ সালেহীন।তিনি বলেন, দক্ষ কর্মী তৈরির লক্ষ্যে ইতিমধ্যেই মানিকগঞ্জের সিঙ্গাইরে একটি বিশেষায়িত বায়োম্যাডিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড টেকনোলজি ইনস্টিটিউট নির্মাণ করা হচ্ছে।দেশকে ভালোবাসে বলেই প্রবাসী কর্মীরা দেশে বিপুল অঙ্কের রেমিট্যান্স প্রেরণ করছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, যথাযথ প্রশিক্ষণ দিয়ে অধিকসংখ্যক দক্ষ কর্মী বিদেশে প্রেরণ করতে পারলে রেমিট্যান্সের ঊর্ধ্বগতি অব্যাহত থাকবে।

 

এ ছাড়া যেসব জেলা থেকে কমসংখ্যক কর্মী বিদেশে যায়, সেসব জেলা থেকে সরকার অধিকসংখ্যক দক্ষ কর্মী বিদেশে প্রেরণের উদ্যোগ নিয়েছে বলে তিনি জানান।সেমিনারে জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন বলেন, প্রবাসী-আয় আমাদের অর্থনীতির অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ একটি খাত। দেশের বৈদেশিক মুদ্রার অন্যতম উৎস হচ্ছে প্রবাসী-আয়।

 

তাই এই খাতকে এগিয়ে নিতে আমাদের আরো সচেষ্ট হতে হবে। দক্ষ মানবসম্পদ তৈরি করে প্রবাসী আয় বৃদ্ধির জন্য আমাদেরকে নতুন নতুন উদ্যোগ গ্রহণ করতে হবে। বিদেশে এখন দক্ষ ও প্রযুক্তি জ্ঞান সম্পন্ন কর্মীদের চাহিদা অনেক। তাই প্রশিক্ষণ কেন্দ্রগুলোতে যুগোপযোগী কোর্স তৈরি করতে হবে।তিনি আরো বলেন, প্রবাসী কর্মীরা অনেক সময় বিভিন্ন সমস্যার সম্মুখীন হন।

 

সেই সমস্যাগুলো গুরুত্বসহকারে দ্রুত সমাধান করতে হবে।মন্ত্রণালয়ের সচিব ড. আহমেদ মুনিরুছ সালেহীন বলেন, দারিদ্র্য বিমোচনে ও নারীর ক্ষমতায়নে বৈদেশিক কর্মসংস্থান গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে।

 

তিনি উল্লেখ করেন যে, সুষ্ঠু অভিবাসন নিশ্চিতকরণ একটি সামষ্টিক দায়িত্ব এবং এ ক্ষেত্রে গণসচেতনতার কোনো বিকল্প নাই।এতে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মো. শহীদুল আলম এনডিসি এবং এতে আরো বক্তব্য দেন মেহেরপুর জেলার পুলিশ সুপার এস এম মুরাদ আলী।