আজ ১১ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৬শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

প্রতিবাদ করতে ভুলিনি : জোফরা আর্চার

প্রথমবার্তা, প্রতিবেদক: হঠাৎ করেই ক্রিকেট মাঠে বর্ণবৈষম্যের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ বন্ধ হয়ে যাওয়ায় সম্প্রতি নিজের ক্ষোভ প্রকাশ করেছিলেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের কিংবদন্তি পেসার মাইকেল হোল্ডিং। করোনার কারণে দীর্ঘদিন বন্ধ থাকার পর গত ৮ জুলাই থেকে পুনরায় মাঠে ফেরে ক্রিকেট।

 

মাঠে নেমেই বর্ণবৈষম্যের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করেছেন খেলোয়াড়রা। কিন্তু পাকিস্তানের বিপক্ষে এবং চলমান অস্ট্রেলিয়া টি-টোয়েন্টি ও ওয়ানডে সিরিজে সেটি দেখতে না পাওয়ায় ক্ষোভ জানান হোল্ডিং। তবে হোল্ডিংকে আশ্বস্ত করলেন ইংল্যান্ডের পেসার জোফরা আর্চার।

 

বার্বাডোজে জন্ম নেওয়া আর্চার বলেন, ‘আমরা ভুলিনি ব্ল্যাক লাইভস ম্যাটার, এখানে কেউই ভুলেনি। আমার মনে হয়, সমালোচনা করার আগে বিষয়টা যাচাই করে নেওয়া মাইকেল হোল্ডিংয়ের উচিত ছিল।

 

আমি প্রায় নিশ্চিত, তিনি সব কিছু জানেন না। আমার মনে হয় না, হোল্ডিং ইংল্যান্ড অ্যান্ড ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ডের (ইসিবি) প্রধান নির্বাহী টম হ্যারিসনের সঙ্গে কথা বলেছেন। আমি টমের সঙ্গে নিয়মিত কথা বলছি এবং আমরা অন্তরালে এই বিষয়টি নিয়ে অনেক কাজ করছি।’

 

গত মে মাসের শেষের দিকে আফ্রিকান-আমেরিকান সাবেক বাস্কেটবল খেলোয়াড় কৃষ্ণাঙ্গ জর্জ ফ্লয়েডকে হাঁটুতে পিষে হত্যা করে যুক্তরাষ্ট্রের মিনেসোটা অঙ্গরাজ্য পুলিশ। ফ্লয়েডের হত্যায় ওই সময় থেকেই প্রতিবাদে ফেটে পড়েছে যুক্তরাষ্ট্রসহ সারা বিশ্ব।

 

গত ৮ জুলাই থেকে ইংল্যান্ড-ওয়েস্ট ইন্ডিজ টেস্ট সিরিজ দিয়ে ক্রিকেট পুনরায় মাঠে ফেরে। প্রথম টেস্টের প্রথম দিনই হাঁটু গেড়ে বসে বর্ণবৈষম্যের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করেছিলেন দুই দলের খেলোয়াড়রা। তাঁদের জার্সিতে লেখাও ছিল- ‘ব্ল্যাক লাইভস ম্যাটার’ স্লোগান।

 

কিন্তু ওই সিরিজের পর সেই প্রতিবাদ আর দেখা যাচ্ছে না। বর্তমান ইংল্যান্ড-অস্ট্রেলিয়া সিরিজে তা যায়নি। এ নিয়ে সম্প্রতি স্কাই স্পোর্টসে ধারাভাষ্য দেওয়ার সময় হোল্ডিং বলেন, ‘ওয়েস্ট ইন্ডিজ দল চলে গিয়েছে মানে এই নয় যে, স্লোগানটা ভুলে যেতে হবে।

 

বর্ণবৈষম্যের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করা থেকে বিরত হতে হবে। আমার কাছে, এ ব্যাপারটি ভালো লাগচ্ছে না। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে বর্ণবৈষম্যের প্রভাব অনেক বেশি। কিন্তু সারা বিশ্বের মানুষ এটির বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করেছে। পৃথিবীর সর্বত্র সাম্য প্রতিষ্ঠার দাবি উঠেছে। সবাই একত্রে জেগে উঠেছিল। কিন্তু হঠাৎ করে এটি কেন বন্ধ হয়ে গেল?’

 

হোল্ডিংয়ের ক্ষোভের জবাবে ক্যারিবিয়ান বংশোদ্ভূত পেসার আর্চার আরো বলেন, ‘হোল্ডিং এমনটা বলতে গিয়ে একটু বেশিই বলে ফেলেছেন। একটু কর্কশ শোনাবে, তবে সমালোচনার আগে তার একটু গবেষণা করে নেওয়া উচিত।’