আজ ১২ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৭শে নভেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

করোনায় যুক্তরাষ্ট্রে মৃত্যু ২ লাখ ছাড়িয়েছে

প্রথমবার্তা, প্রতিবেদক: গত ৩১ ডিসেম্বর চীনের হুবেই প্রদেশের উহান শহরে প্রথম করোনার উপস্থিতি ধরা পড়ে। এখন পর্যন্ত বিশ্বের দুই শতাধিক দেশে এই ভাইরাস তাণ্ডব চালাচ্ছে। করোনা মহামারির কারণে বিশ্বে ভয়াবহ বিপর্যয় নেমে এসেছে।

 

তবে এখন পর্যন্ত করোনায় সবচেয়ে বিপর্যস্ত যুক্তরাষ্ট্র। আক্রান্ত ও মৃত্যুতে যুক্তরাষ্ট্রের ধারে-কাছেও নেই কোনো দেশ। গত কয়েক মাস ধরেই টানা করোনা সংক্রমণে শীর্ষ অবস্থানে রয়েছে ট্রাম্পের দেশ।

 

যুক্তরাষ্ট্রে এর মধ্যেই করোনায় মৃত্যুর সংখ্যা দুই লাখ ছাড়িয়ে গেছে। ওয়ার্ল্ডোমিটারের এক পরিসংখ্যান অনুযায়ী, যুক্তরাষ্ট্রে এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৬৭ লাখ ৮৮ হাজার ১৪৭। এর মধ্যে মারা গেছে ২ লাখ ১৯৭ জন।

 

দেশটিতে এখন পর্যন্ত করোনা থেকে সুস্থ হয়ে উঠেছে ৪০ লাখ ৬৮ হাজার ৮৬ জন। যুক্তরাষ্ট্রে বর্তমানে করোনার অ্যাক্টিভ কেস ২৫ লাখ ১৯ হাজার ৮৬৪। এছাড়া আশঙ্কাজনক অবস্থায় রয়েছে ১৪ হাজার ১৬৫ জন।

 

তবে জন্স হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিসংখ্যান বলছে, যুক্তরাষ্ট্রে এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৬৬ লাখ ১ হাজার ৩৩৭। এর মধ্যে মারা গেছে ১ লাখ ৯৫ হাজার ৬৩৭ জন।

 

ওই পরিসংখ্যান অনুযায়ী, মঙ্গলবার দেশটিতে নতুন করে আক্রান্তের সংখ্যা ৪৭ হাজার ৬৮৫। অপরদিকে করোনায় আক্রান্ত হয়ে একদিনেই মারা গেছে ১ হাজার ১৪৪ জন। দেশটির সবগুলো অঙ্গরাজ্যেই করোনার প্রকোপ ছড়িয়ে পড়েছে।

 

যুক্তরাষ্ট্রে এখন পর্যন্ত সংক্রমণের শীর্ষে রয়েছে ক্যালিফোর্নিয়া। অপরদিকে সবচেয়ে বেশি মৃত্যু দেখেছে নিউ ইয়র্ক অঙ্গরাজ্য। ক্যালিফোর্নিয়া, ফ্লোরিডা, টেক্সাস, নিউ ইয়র্ক এবং জর্জিয়ায় সংক্রমণ লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে।

 

ক্যালিফোর্নিয়ায় এখন পর্যন্ত আক্রান্তের সংখ্যা ৭ লাখ ৬৮ হাজার ৬০১। এর মধ্যে মারা গেছে ১৪ হাজার ৬১৫ জন। টেক্সাসে এখন পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছে ৭ লাখ ৪ হাজার ৮১৩ জন। এর মধ্যে মৃত্যু হয়েছে ১৪ হাজার ৭৩০ জনের।

 

ফ্লোরিডা অঙ্গরাজ্যে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৬ লাখ ৬৮ হাজার ৮৪৬। এর মধ্যে মৃত্যু হয়েছে ১২ হাজার ৭৮৮ জনের। নিউ ইয়র্ক অঙ্গরাজ্যে এখন পর্যন্ত আক্রান্তের সংখ্যা ৪ লাখ ৭৯ হাজার ১৮৪। এর মধ্যে মারা গেছে ৩৩ হাজার ১৪১ জন। এদিকে, জর্জিয়ায় আক্রান্তের সংখ্যা ২ লাখ ৯৬ হাজার ৮৩৩ এবং মৃত্যু হয়েছে ৬ হাজার ৩৯৮ জনের।