আজ ১৫ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ৩০শে নভেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

রায়ার ইচ্ছে পূরণ করলেন প্রধানমন্ত্রী

প্রথমবার্তা, প্রতিবেদক: বিশেষ চাহিদা-সম্পন্ন কিশোরী মামিজা রহমান রায়ার আগ্রহে সাড়া দিয়ে ভিডিও কলে কথা বলেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বৃহস্পতিবার (১৭ সেপ্টেম্বর) রাতে প্রধানমন্ত্রী ও মামিজার ভিডিও কলে কথা বলার একটি ছবি সামাজিক মাধ্যমে ভাইরাল হয়ে যায়।প্রধানমন্ত্রীর সহকারী প্রেস সচিব এ বিএম সরওয়ার-ই আলম সরকার মামিজা রহমান রায়ার সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর কথা বলার বিষয়টি প্রথমবার্তাকে নিশ্চিত করেন।

 

পরবর্তীতে তিনি তার ফেসবুকে প্রোফাইলে একটি ভিডিও শেয়ার করেন। সেখানে তিনি লিখেন ,‘মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা একজন বিশেষ চাহিদা-সম্পন্ন কিশোরীর অনুরোধে সাড়া দিয়ে আজ আনুমানিক বিকাল ৫টায় তাকে ভিডিও কল করেন’।বৃহস্পতিবার বিকেল ৫টায় মামিজা রহমান রায়ার মা নাবিহা রহমান পিংকীর মোবাইল ফোনে ভিডিও কল করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

 

কিশোরী রায়া ভিডিও কলে প্রধানমন্ত্রীকে জাতীয় সংগীত গেয়েও শোনান। রায়ার সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীও জাতীয় সংগীতে কণ্ঠ মিলিয়েছেন। এছাড়া রায়া প্রধানমন্ত্রীকে একটি কবিতা আবৃত্তি করে শুনিয়েছেন বলেও জানা গেছে।

 

এর আগে এই কিশোরী মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলার আগ্রহ প্রকাশ করে সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করেছিলো। সেই আগ্রহে সাড়া দিয়ে ভিডিও কলে কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী। বৃহস্পতিবার রাতে প্রধানমন্ত্রী ও মেয়েটির ভিডিও কলের একটি ছবি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ব্যাপক ভাইরাল হয়।এর আগে মামিজা এবং তার শিক্ষক হাছিনা হাফিজের ভিডিওতে কথোপকথন এখানে তুলে ধরা হলো—

‘আমার নাম মামিজা রহমান রায়া বুড়ী লম্বু।
-আচ্ছা তোমার নাম লম্বু, তোমাকে কে লম্বু বলে ডাকে।
-আমার টিচারের নাম হাছিনা হাফিজ।
-তুমি আজকে কাকে ভিডিও করছো, কাকে ভিডিও করছো কার উদ্দেশ্যে ভিডিও করছো?
-শেখ হাসিনার জন্য প্রাইম মিনিস্টার শেখ হাসিনার জন্য।
-তুমি কি জানো শেখ হাসিনা আমাদের প্রাইম মিনিস্টার?
-হ্যাঁ প্রাইম মিনিস্টার শেখ হাসিনা।
-তুমি কেন প্রাইম মিনিস্টার শেখ হাসিনার সাথে কথা বলতে চাও?
-ওর সাথে আমি কথা বলবো, গল্প করবো।
-কেন তুমি আমাদের প্রাইম মিনিস্টারের সাথে কথা বলতে চাও কি কথা বলতে চাও?
-(শেখ হাসিনার প্রতি সালাম দিয়ে বলেন) শেখ হাসিনার সাথে কথা বলবো অনেক। মিষ্টি শেখ হাসিনার সাথে কথা বলবো।
-তুমি কি শেখ হাসিনাকে পছন্দ করো?
-আই লাইক শেখ হাসিনা।
-কেন শেখ হাসিনাকে পছন্দ করো?
-ওকে আমার ভাল লাগে? শেখ হাসিনার জীবনে অনেক ভালবাসা আছে। এ্যা শেখ হাসিনা… আমি তোমাকে সাগরের মতো অনেক ভালবাসি, শেখ হাসিনা আমি অনেক সাগরের মতো ভালবাসি…।
-তুমি কি চাচ্ছো আমাদের প্রাইম মিনিস্টার একদিন তোমার সাথে কথা বলুক?
-(মাথা ঝাঁকিয়ে) ওকে।
-তাহলে তুমি আমাদের প্রাইম মিনিস্টার শেখ হাসিনাকে অনুরোধ করো।
-হ্যাঁ অনুরোধ করবো জ্বি জ্বি…।
-তুমি অনুরোধ করো, তোমার অনুরোধ শুনে হয়তোবা তিনি কথা বলতেও পারেন।
-শেখ হাসিনা আপনি আমার সাথে কথা বলবেন শেখ হাসিনা সবার পরে আমার সাথে কথা বইলেন।

 

শিক্ষক তার ছাত্রীর পরিচয় তুলে ধরে বলেন, ও আমাদের স্টুডেন্ট, ওর নাম হচ্ছে মামিজা রহমান রায়া, ও হচ্ছে প্রতিদিন সকালে ঘুম থেকে উঠেই মনে করে যে শেখ হাসিনা ওর মোবাইলে ফোন করবে, প্রাইম মিনিস্টার শেখ হাসিনা কল করবে, ওর সাথে একটু কথা বলবে।

 

আমার যেটা কাজ সেটা হচ্ছে আমি প্রতিদিন ঘুম থেকে সকালে উঠে রায়ার জন্য আমাদের প্রাইম মিনিস্টারের একটা ছবি আপলোড করে ওকে আমি দেই। ও যদি ঘুম থেকে ওঠে দেখে যে ওকে আমি একটা প্রাইম মিনিস্টারের ছবি পাঠিয়েছি তাহলে সে খুশি।

 

 

আর খুব ইচ্ছা আমাদের প্রাইম মিনিস্টার একটি ফোন করে বলবে, রায়া তুমি কেমন আছো, রায়া তোমাকে আমি দেখতে চাই, সে আমাদের প্রাইম মিনিস্টারকে অনেক পছন্দ করে।

 

আমি আমাদের এই ভিডিওয়ের মাধ্যমে আজকে চাচ্ছি যে, আমাদের এই ভিডিওটা আমাদের প্রাইম মিনিস্টার শেখ হাসিনা পর্যন্ত পৌঁছাবে এবং ওনি একদিন এতো ব্যস্ততার মাঝেও এই বিশেষ চাহিদা-সম্পন্ন শিশুদের জন্য তো অনেক কিছু করছেন, ওনি রায়ার খুশীর জন্য রায়ার সাথে একদিন কথা বলবেন।