আজ ১১ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৭শে অক্টোবর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

জাহাজের নাবিক ও মালিককে গ্রেপ্তার করতে ইন্টারপোলের সাহায্য চায় বৈরুত

প্রথমবার্তা, প্রতিবেদক:বৈরুতে ভয়াবহ বিস্ফোরণের জেরে দুই রুশ নাগরিককে গ্রেপ্তারের জন্য আর্জি জানিয়েছে লেবানন সরকার। তবে শেষ পর্যন্ত তাদের গ্রেপ্তার করা যাবে কি না তা নিয়ে তৈরি হয়েছে সন্দেহ।

 

সাত বছর আগে মলডোভার পতাকা লাগানো একটি মালবাহী জাহাজে বৈরুত বন্দরে যেয়ে দাঁড়ায়। যদিও বৈরুত বন্দরে যাওয়ার কথা ছিলো না। জর্জিয়া থেকে ৩ হাজার কিলো অ্যামোনিয়াম নাইট্রেট নিয়ে জাহাজটি যাচ্ছিল মোজাম্বিকের একটি কারখানায়।

 

তবে পথে মধ্যে নাবিককে রাস্তা পরিবর্তন করে বৈরুত বন্দরে যেতে বলা হয়। সেখান থেকে আরো কিছু মালপত্র তোলার কথা বলা হয়েছিল জাহাজটিকে।

 

বন্দরে পৌঁছানোর পর নানা আইনি জটিলতার কারণে জাহাজটি থেকে যায়। পরে অ্যামোনিয়াম নাইট্রেট বন্দরের একটি গুদামে মজুত রাখা হয়। জাহাজটিও এক সময় বন্দরে ভেঙে পড়ে।

 

দীর্ঘদিন গুদামে থাকার পর গত আগস্টে গোটা বৈরুত ধ্বংস স্তুপে পরিণত হয়। এতে ১৯০ জনের বেশি মারা যান। আহত ৫ হাজার। গৃহহীন হয়ে পড়েন অনেকে। ওই ঘটনার জেরে একটি তদন্ত কমিটি ঘটন করা হয় যেখানে জাহাজের মালিক ও নাবিককে গ্রেপ্তারের জন্য বলা হয়।

 

দুজনই রাশিয়ার নাগরিক। তবে কারো নাম প্রকাশ করেনি বৈরুত। গোপনীয়তা বজায় রেখে ইন্টারপোলকে বিষয়টি জানানো হয়। বিশেষজ্ঞরা বলছেন যে অভিযোগ তাদের বিরুদ্ধে উঠেছে এর জন্য যে ইন্টারপোল তাদের গ্রেপ্তার করবে এমন মনে করার কোন অর্থ নেই।