আজ ৪ঠা কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২০শে অক্টোবর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

অজানা রোগে মারা গেলেন শিক্ষক আবু জাফর

প্রথমবার্তা, প্রতিবেদক:চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জ সরকারি মডেল প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক আবু জাফর মো. সালেহ মারা গেছেন। এর আগে গত বৃহস্পতিবার হঠাৎ করে গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়েন তিনি।

 

শনিবার সকালে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এর কিছুক্ষণ পরই মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন তিনি।শনিবার রাতে এশার নামাজের পর ফরিদগঞ্জ উপজেলার পশ্চিম চরবড়ালী গ্রামে জানাজা শেষে পারিবারিক গোরস্থানে তাকে দাফন করা হয়। মৃত্যুকালে তার বয়স ছিল ৪০ বছর।

 

ফরিদগঞ্জ উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক গিয়াসউদ্দিন কবির জানান, গত বৃহস্পতিবার হঠাৎ করে গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়েন শিক্ষক আবু জাফর মো. সালেহ।

 

এসময় স্বজনরা প্রথমে চাঁদপুরের একটি বেসরকারি হাসপাতালে নিয়ে যান আবু জাফর মো. সালেহকে।এই শিক্ষক নেতা আরো জানান, সেখানে শারীরিক পরিস্থিতির আরো অবনতি দেখা দিলে চাঁদপুর সরকারি জেনারেল হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়।

 

তবে দুই দিনের মাথায় অবস্থার কোনো উন্নতি না হওয়ায় শিক্ষক আবু জাফর মো. সালেহকে শনিবার সকালে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানেই চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি।

 

কোন ধরনের রোগে আক্রান্ত হয়ে শিক্ষক আবু জাফর মো. সালেহ মারা গেছেন, তা নিশ্চিত করে জানাতে পারেননি স্বজন কিংবা সহকর্মীরা।খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, চলতি বছরের শুরুতে ফরিদগঞ্জ সরকারি মডেল প্রাথমিক বিদ্যালয়ে যোগ দেন সহকারী শিক্ষক আবু জাফর মো. সালেহ।তার দুটি শিশু কন্যা সন্তান রয়েছে। স্ত্রী নাদিয়া আক্তার ফরিদগঞ্জ উপজেলার মধ্য চরবড়ালী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক।

 

এদিকে, সহকারী শিক্ষক আবু জাফর মো. সালেহ’র অকাল মৃত্যুতে জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. শাহাবউদ্দিন, ফরিদগঞ্জ উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা মুনিরউজ্জামান খানসহ শিক্ষক সমিতি, সহকারী শিক্ষক সমিতি নেতৃবৃন্দ শোক প্রকাশ ও পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানিয়েছেন।প্রসঙ্গত, কর্মস্থলে দায়িত্বশীল, সৎ এবং বিনয়ী আচরণের জন্য সহকর্মীদের একজন আদর্শ শিক্ষক ছিলেন আবু জাফর মো. সালেহ।