আজ ৫ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২১শে অক্টোবর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

মসজিদ সহ সকল উপাসনালয়ে ৯ ঘোষণা প্রচারের নির্দেশনা

প্রথমবার্তা,প্রতিবেদক: আসন্ন শীতকালে দ্বিতীয় ধাপে করোনা সংক্রমণ রোধে জনসচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে মসজিদ ও অন্যান্য ধর্মীয় উপাসনালয় থেকে ৯টি ঘোষণা নিয়মিতভাবে মাইকে প্রচারের জন্য নির্দেশনা দিয়েছে ধর্ম মন্ত্রণালয়।

 

ঘোষণাগুলো হচ্ছে ঘরের বাইরে গেলে অবশ্যই মাস্ক পরুন; কিছুক্ষণ পর পর সাবান ও পানি দিয়ে কমপক্ষে ২০ সেকেন্ড যাবৎ দুই হাত ভালোভাবে পরিষ্কার করুন; জামাতে নামাজ আদায় ও অন্যান্য উপাসনাসহ চলাফেরা ও সব কাজে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখুন;

 

পাঁচ ওয়াক্ত নামাজসহ সব সময় মাস্ক পরে মসজিদে প্রবেশের বিষয়টি মসজিদ কমিটি নিশ্চিত করবে; হাঁচি-কাশির সময় টিস্যু অথবা কাপড় ব্যবহার করুন বা বাহুর ভাঁজে নাক-মুখ ঢেকে রাখুন;

 

করোনা ভাইরাসের উপসর্গ দেখা দিলে ডাক্তারের শরণাপন্ন হোন; গুজব রটাবেন না, গুজবে কান দেবেন না এবং গুজবে বিচলিত হবেন না; সরকারের জারি করা বিধি-নিষেধ এবং স্থানীয় প্রশাসনের নির্দেশনা অবশ্যই অনুসরণ করুন।

 

গত বৃহস্পতিবার ধর্ম মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সহকারী সচিব আবুল কালাম আজাদ স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, বিশ্বের অন্যান্য দেশের মতো বাংলাদেশেও মহামারি করোনাভাইরাসের সংক্রমণ অব্যাহত রয়েছে।

 

আগামী শীতকালে দ্বিতীয় ধাপে করোনা সংক্রমণের হার বৃদ্ধির আশঙ্কা করা হচ্ছে, কিন্তু অনেক ক্ষেত্রে মাস্ক ব্যবহারের ক্ষেত্রে উদাসীনতা লক্ষ্য করা যাচ্ছে এবং মানুষজন মাস্ক ছাড়া মসজিদ ও অন্যান্য ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানে প্রবেশ করছে।

 

করোনা মহামারি সংক্রমণ রোধে দেশের সব মসজিদ থেকে প্রতিদিন মাইকে ও জুমার খুতবার সময় এবং অনুরূপভাবে অন্যান্য ধর্মীয় উপাসনালয় থেকে উল্লিখিত ঘোষণাগুলো ব্যাপকভাবে প্রচার করা প্রয়োজন বলে বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়।

 

বিষয়টি নিশ্চিত করতে দেশের সব মসজিদ ও অন্যান্য ধর্মীয় উপাসনালয়ের মাইক থেকে নিয়মিতভাবে ঘোষণাগুলো আবশ্যিকভাবে প্রচার অব্যাহত রাখার জন্য স্থানীয় প্রশাসন, ইসলামিক ফাউন্ডেশন, হিন্দু ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্ট, বৌদ্ধ ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্ট ও খ্রিস্টান ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্টের কর্মকর্তা-কর্মচারী এবং সংশ্লিষ্ট মসজিদ ও উপাসনালয়ের পরিচালনা কমিটিকে অনুরোধ জানানো হয়েছে ধর্ম মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে।