আজ ২০শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ৫ই ডিসেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

রাজধানীর খিলক্ষেতে বালির গদির ম্যানেজারের মরদেহ উদ্ধার

প্রথমবার্তা, প্রতিবেদক: রাজধানীর খিলক্ষেতের মস্তুল এলাকায় অবস্থিত দুলাল এন্টারপ্রাইজ নামের একটি বালুর গদি থেকে জনি মিয়া (২৫) নামের এক যুবকের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

নিহত জনি ওই বালুর গদির ম্যানেজার ছিলেন। গতকাল সোমবার (১২ অক্টোবর) দিবাগত রাত পৌনে ৪টার দিকে খিলক্ষেত থানা পুলিশ মরদেহটি উদ্ধার করে।

জনির বাবা জাইদুল মিয়া জানান, মাত্র ১৫ দিন আগেই ওই বালুর গদিতে ম্যানেজার হিসেবে চাকরি নেন তাঁর ছেলে।
গতকাল সোমবার সন্ধ্যায় তিনি বাসা থেকে কাজে যান। এরপর রাত ৩টার দিকে একজন তাঁদের বাসায় এসে জানায় জনি অ্যাক্সিডেন্ট করেছেন। পরে সেখানে গিয়ে জানিকে মৃত অবস্থা পড়ে থাকতে দেখেন তিনি।

জাইদুল মিয়ার অভিযোগ, পূর্ব শত্রুতার জের ধরে বালু ব্যবসায়ী দুলাল, রাকিব, আব্বাস, আরিফ তাঁকে হত্যা করে তার ওপর দিয়ে গাড়ি তুলে দিয়েছে। এ ঘটনায় মামলা করবেন বলে জানান তিনি।

বাবা জাইদুল মিয়া জানান, এক ভাই ও তিন বোনের মধ্যে সবার বড় ছিলেন জনি। মাত্র একমাস আগে তিনি বিয়ে করেছেন। তাঁর স্ত্রীর নাম লিমা আক্তার।

খিলক্ষেত থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. আব্দুর রহিম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, রাতে খবর পেয়ে বালুর গদি থেকে জনির মরদেহ উদ্ধার করা হয়। রাতে বেকু দিয়ে ট্রাকে বালু তোলার সময় ডান চোখ ও কপালে আঘাত পেয়ে ঘটনাস্থলেই মারা গেছেন জনি। তবে ময়নাতদন্তের পর তাঁর মৃত্যুর কারণ নিশ্চিত হওয়া যাবে।

এসআই আব্দুর রহিম আরো বলেন, এখন পর্যন্ত পরিবারের পক্ষ থেকে কোনো অভিযোগ পায়নি। অভিযোগ পেলে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে। ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ মর্গে পাঠানো হয়েছে বলে জানান তিনি।