আজ ১১ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৭শে অক্টোবর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

পাবনার বেড়া উপজেলার ইউএনও লাঞ্ছিত : মেয়রকে সাময়িক বরখাস্ত

প্রথমবার্তা, প্রতিবেদক: পাবনার বেড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে (ইউএনও) লাঞ্ছিত করার দায়ে বেড়া পৌরসভার মেয়র আব্দুল বাতেনকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করেছে স্থানীয় সরকার বিভাগ। গতকাল মঙ্গলবার সন্ধ্যায় স্থানীয় সরকার ও পল্লী উন্নয়ন মন্ত্রণালয়ের উপসচিব ফারুক হোসেন স্বাক্ষরিত এক আদেশে এই তথ্য জানানো হয়।

 

স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের উপসচিব মো. ফারুক হোসেন স্বাক্ষরিত আদেশে পাবনা জেলা প্রশাসকের পাঠানো প্রতিবেদনের উল্লেখ করে পৌর মেয়র আব্দুল বাতেনের বিরুদ্ধে বেড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে সমন্বয়সভা চলাকালে শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত, অশ্রাব্য ভাষায় গালাগাল ও ভয়ভীতি প্রদর্শনের অভিযোগ আনা হয়।

 

সংশ্লিষ্ট বিষয়ে পৌর মেয়র আব্দুল বাতেনের বিরুদ্ধে বিস্তারিত অভিযোগের ফিরিস্তি দিয়ে তা স্থানীয় সরকার (পৌরসভা) আইন ২০০৯-এর ৩২ (১) (খ) ও (ঘ) ধারায় বর্ণিত অভিযোগের পর্যায়ভুক্ত হওয়ায় একই আইনের ৩১ (১) ধারা অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহণ সমীচীন বলে উল্লেখ করা হয়। এ কারণে তাঁকে সাময়িক বহিষ্কার করা হয়েছে বলে জানানো হয়।

 

গত সোমবার বেড়া উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে উপজেলার মাসিক উন্নয়ন সমন্বয়সভায় ইউএনও আসিফ আনাম সিদ্দিকীকে শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করেন পৌর মেয়র আব্দুল বাতেন।

 

ওই দিন রাতেই স্থানীয় সরকার বিভাগের সিনিয়র সচিব বরাবর প্রেরিত এক পত্রে মেয়র আব্দুল বাতেনের বিরুদ্ধে জরুরি ভিত্তিতে ব্যবস্থা গ্রহণের অনুরোধ জানান পাবনা জেলা প্রশাসক।

 

বরখাস্তের বিষয়টিকে ষড়যন্ত্র উল্লেখ করে আব্দুল বাতেন বলেন, ‘জেলা প্রশাসনের অনিয়ম ও দুর্নীতির প্রতিবাদ করায় আমাকে ফাঁসানো হয়েছে। আমি এ ব্যাপারে আইনের আশ্রয় গ্রহণ করব।’ আজ বুধবার সাকাল ১১টায় বেড়া টাউন ক্লাবে তিনি এই বিষয়ে সংবাদ সম্মেলন আহ্বান করেছেন।