আজ ১১ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৭শে অক্টোবর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

দোকানের শাটার আটকে ৪র্থ শ্রেণির শিশুকে ধর্ষণ

প্রথমবার্তা, প্রতিবেদক: হবিগঞ্জ সদর উপজেলার রিচি গ্রামে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের চতুর্থ শ্রেণিতে পড়ুয়া এক ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে নাজির মিয়া (৫০) নামে এক ব্যবসায়ীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। নির্যাতনের শিকার শিশুটিকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার দিবাগত গভীর রাতে হবিগঞ্জ সদর মডেল থানা পুলিশ নাজির মিয়াকে তার বাড়ি থেকে গ্রেপ্তার করে। তিনি ওই গ্রামের মৃত শুকুর আলী ওরফে কালাই মিয়ার ছেলে। রাতেই মেয়েটির বাবা বাদী হয়ে থানায় মামলা দায়ের করেছেন।

মামলায় অভিযোগ করা হয়, নির্যাতনের শিকার শিশু স্থানীয় প্রাথমিক বিদ্যালয়ের চতুর্থ শ্রেণির ছাত্রী। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় সে বিস্কুট কিনতে বাড়ির পাশের দোকানে যায়। সেখানে যাওয়ার রাস্তার পাশেই নাজির মিয়ার লেপ-তোষকের দোকান। বিস্কুটের দোকান খোলা না পেয়ে খালি হাতে মেয়েটি বাড়ি ফিরছিল। তখন নাজির মিয়া শিশুটিকে তার দোকানে নিয়ে শাটার ফেলে ধর্ষণ করেন।

ঘটনা আঁচ করতে পেরে শিশুর মা আশপাশের লোকজনকে নিয়ে নাজির মিয়ার দোকান থেকে তাকে উদ্ধার করে এনে হবিগঞ্জ সদর হাসপাতালে ভর্তি করেছেন।

হবিগঞ্জ সদর মডেল থানার উপ পরিদর্শক (এসআই) শাহিদ মিয়া জানান, বৃহস্পতিবার রাত দশটায় মেয়ের বাবা ধর্ষণের অভিযোগ এনে থানায় মামলা দায়ের করেন। এরপর রাতেই অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করা হয়। এ নিয়ে পুলিশ তদন্তে নেমেছে।