আজ ৬ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২২শে অক্টোবর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

প্রথমবার্তা, প্রতিবেদক: কুমিল্লার লাকসামের কলেজছাত্র মো. নাহিদুল ইসলাম সায়েম (২২) হত্যা মামলার প্রধান আসামিসহ দুইজনকে গ্রেপ্তার করেছে কুমিল্লা ডিবি পুলিশের একটি দল। গতকাল বৃহস্পতিবার গোপন সংবাদের ভিত্তিতে রাজধানী ঢাকার উত্তরার ১৪ নং সেক্টরের একটি ফ্ল্যাটে অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলো, উপজেলার নাগরীপাড়া গ্রামের জসিম পাটোয়ারীর ছেলে এএসএম মাইনুল ইসলাম প্রকাশ লিংকন পাটেয়ারী (২৬) ও তার ছোট ভাই এএসএম মিনহাজুল ইসলাম প্রকাশ লিপন পাটোয়ারী (২০)। ওইদিনই গ্রেপ্তারকৃতদের কুমিল্লার আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, লাকসাম উপজেলার নাগরীপাড়া গ্রামের মৃত আবদুল কাদেরের ছেলে চাঁদপুর পুরাতন বাজার ডিগ্রি কলেজের ছাত্র নাহিদুল ইসলাম সায়েমকে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে চলতি বছরের ৪ জুলাই সকালে প্রতিপক্ষের লোকজন কুপিয়ে ও পিটিয়ে গুরুতর আহত করে। ঘটনার চারদিন পর ৮ জুলাই হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সায়েম মারা যান। এই ঘটনায় ওই দিনই নিহত সায়েমের মা পারুল বেগম বাদী হয়ে একই এলাকার জসিম পাটোয়ারীর ছেলে লিংকন পাটোয়ারী, লিমন পাটোয়ারী, লিপন পাটোয়ারী, শাহাজাহান পাটোয়ারীর ছেলে মো. দিদারুল ইসলাম পাটোয়ারী, মৃত গফুর পাটোয়ারীর ছেলে জসীম পাটোয়ারী, জসীম পাটোয়ারীর ছেলে শাহিনা পারভীনসহ আরো অজ্ঞাত ৪-৫ জনের বিরুদ্ধে লাকসাম থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

এদিকে গত ৮ আগস্ট মামলাটি কুমিল্লা ডিবি পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়। কুমিল্লা ডিবি পুলিশের পরিদর্শক মো. সাজ্জাদ হোসেন তদন্তের দায়িত্ব পেয়ে গত ২৮ আগস্ট মামলার ৪ নং বিবাদী মো. দিদারুল ইসলাম পাটোয়ারীকে গ্রেপ্তার করেন।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা কুমিল্লা ডিবি পুলিশের পরিদর্শক মো. সাজ্জাদ হোসেন জানান, গ্রেপ্তারকৃত দুইজনকে কুমিল্লা আদালতে হাজির করা হলে তারা হত্যার দায় স্বীকার করে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি প্রদান করে। ফলে আদালতের বিজ্ঞ হাকিম তাদেরকে জেলহাজতে প্রেরণের নির্দেশ দেন।