আজ ১৮ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ৩রা ডিসেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

ট্রাম্পের সভার জন্য করোনা আক্রান্ত ৩০ হাজার, মৃত্যু ৭০০ জনের

প্রথমবার্তা, প্রতিবেদক: আমেরিকার প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের নির্বাচনী জনসভার কারণে ৩০ হাজার মানুষ করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। মৃত্যু হয়েছে সাতশরও বেশি মানুষের।

 

সম্প্রতি এক সমীক্ষায় এমনই দাবি করলেন স্ট্যানফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকরা। খবর মার্কিন গণমাধ্যম টিএমজেড নিউজের।সমীক্ষায় দাবি করা হয়, যেসব জায়গায় ট্রাম্প জনসভা বা র‌্যালি করেছেন, সেখানেই করোনাভাইরাস ছড়িয়েছে ভয়াবহভাবে।

 

স্ট্যানফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকরা সমীক্ষাটির নাম দিয়েছেন- ‘দ্য এফেক্টস অব লার্জ গ্রুপ মিটিংস অন দ্য স্প্রেড অব কোভিড-১৯: দ্য কেস অব ট্রাম্প র‌্যালিজ’।

 

সমীক্ষায় দাবি করা হয়েছে, গত ২০ জুন থেকে ২২ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত মোট ১৮টি জনসভা করেছেন ট্রাম্প। এই সময়ের মধ্যে ৩০ হাজার মানুষ করোনায় সংক্রমিত হয়েছেন।

 

তবে জনসভায় উপস্থিত সবাই যে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন, এমনটি নয়। তবে এ জনসভা থেকেই সংক্রমণ ছড়িয়েছে বলে মত গবেষকদের।যুক্তরাষ্ট্রে যখন করোনার সংক্রমণ চরম মাত্রায় পৌঁছেছে, মাস্ক ছাড়াই বিভিন্ন র‌্যালিতে অংশ নিতে দেখা গেছে ট্রাম্পকে।

 

নির্বাচনী জনসভা করেছেন। পরে নিজেও করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। তার পরও জনসভা করে গেছেন।এ জন্য প্রবল সমালোচনার মুখে পড়তে হয়েছে ট্রাম্পকে। এই মহামারীর সময়ে তার উদাসীন মনোভাব নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন অনেকে।

 

বিরোধীরা এ মনোভাব নিয়ে বারবার আক্রমণ শানিয়েছেন।সমীক্ষার বিষয়টি প্রকাশ্যে আসার পর ট্রাম্পের প্রতিদ্বন্দ্বী প্রেসিডেন্ট পদপ্রার্থী জো বাইডেন সেটিকে হাতিয়ার করে জোর প্রচার শুরু করেছেন।

 

ট্রাম্পকে কটাক্ষ করে দেশবাসীর উদ্দেশে বাইডেন বলেন, আপনাদের প্রতি যত্নশীল নন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। নিজের সমর্থকদের কথাও চিন্তা করেন না তিনি।যদিও এই সমীক্ষা এবং বাইডেনের মন্তব্য নিয়ে ট্রাম্পের কোনো প্রতিক্রিয়া জানা যায়নি।