আজ ১৫ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ৩০শে নভেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

কোটচাঁদপুর বিএনপি’র বিতর্কিত কমিটি, ভেঙ্গে দেয়ার দাবীতে সংবাদ সম্মেলন

প্রথমবার্তা, প্রতিবেদক: ঝিনাইদহ জেলা কমিটির বিরুদ্ধে দল ধ্বংসের পায়তারার অভিযোগ এনে এবং কোটচাঁদপুর উপজেলা বিতর্কিত আহ্বায়ক কমিটি ভেঙ্গে দেয়ার দাবীতে ঝিনাইদহের কোটচাঁদপুর উপজেলা বিএনপি’র একটি বৃহৎ অংশ বৃহস্পতিবার সকাল ১১টার দিকে এক সংবাদ সম্মেলন করেছেন।

উপজেলা বিএনপি’র বাসষ্ট্যান্ড সংলগ্ন অফিসে উপজেলা বিএনপি’র অধিকাংশ নেতা কর্মিদের উপস্থিতিতে সংবাদ সম্মেলনে লিখিতি বক্তব্য পাঠ করে শোনান উপজেলা বিএনপি’র সাবেক সভাপতি সিরাজুল ইসলাম সিরাজ।

এ সময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, সাবেক উপজেলা বিএনপির সভাপতি নুরুজ্জামান মিয়া, সাবেক উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক গোলাম ফারুক, সদ্য পদত্যাগকারী উপজেলা বিএনপি’র যুগ্ন আহ্বায়ক আলমগীর খান, সাইদুর রহমান, মনিরুল ইসলাম মণ্টু, বজলুর রহমান, বিএনপি নেতা আয়েছ উদ্দীন মিয়া, আজমল হোসেন, মজনুর রহমান, অহিদুল ইসলাম খান, মুজিদ মেম্বর, উপজেলা স্বেচ্ছা সেবক দলের সভাপতি কামরুজ্জামান সিদ্দিক, থানা ছাত্রদলের সদস্য সচীব হুমায়ুন কবির ভূইয়া হিরাসহ বিভিন্ন সহযোগী সংগঠনের শতাধীক নেতা কর্মী উপস্থিত ছিলেন।

লিখিত বক্তব্যে উপজেলা বিএনপি’র সাবেক সভাপতি সিরাজুল ইসলাম বলেন, নতুন কমিটি গঠনের লক্ষে নিয়ম অনুযায়ী কোটচাঁদপুর উপজেলা ও পৌর কমিটি ভেঙ্গে দেয়া হয়। কেন্দ্র কমিটি’র তথ্য ও গবেষণা সহ-সম্পাদক শিমুল খানের ষড়যন্ত্রে জেলা কমিটি আহ্বায়ক ও সদস্য সচিব কোন আলাপ আলোচনা ছাড়াই নিজেদের স্বার্থ চরিতার্থ করতে চুপিসারে নিজেদের পছন্দ মত ৪১ সদস্য বিশিষ্ট কোটচাঁদপুর উপজেলা কমিটি গঠন করেন। যা গত ৭ই মার্চ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে দেন তারা। ফলে কোটচাঁদপুর উপজেলা বিএনপি’র দুটি গ্রুপে বিভক্তসহ দলীয় নেতা কর্মিদের মধ্যে টান টান উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। সাথে সাথে এ আহ্বায়ক কমিটি’র ৪জন যুগ্ন আহ্বায়কসহ মোট ১৬জন সদস্য ওই কমিটি থেকে পদত্যাগ করেন। যা এর আগে বিভিন্ন জাতীয় ও স্থানীয় দৈনিকে খবরটি প্রকাশিত হয়।

বিতর্কিত কমিটি উল্লেখ করে বিষয়টি নিয়ে একটি লিখিত অভিযোগও দেন কেন্দ্র কমিটি’র কাছে বিএনপি’র বৃহত্তর এই অংশটি। কিন্তু এখনো পর্যন্ত কেন্দ্র কমিটি ব্যবস্থা না নেয়ায় বর্তমান বিতর্কিত কমিটির আহ্বয়ক আবদুর রাজ্জাক ইউনিয়নে অন্য দলের লোক নিয়ে এসে কমিটি করছেন বলে অভিযোগ করা হয় লিখিত অভিযোগে। অভিযোগে বলা হয় বর্তমান কমিটিতে দলের জন্য নিবেদিত প্রাণ হামলা মামলার যারা জর্জরিত তাদেরকে বাদ দেয়া হয়েছে। আমরা এ কমিটি মানিনা।

এর আগে এই জেলা কমিটি শৈলকুপা, হরিণাকুন্ডু এবং কালিগজ্ঞ উপজেলা বিতর্কিত কমিটি করায় কেন্দ্রকমিটি সমস্ত কার্যক্রম বন্ধ করে দেয়।
তাই আপনাদের (সাংবাদিক) মাধ্যমে কেন্দ্র কমিটি’র কাছে দাবী জানাচ্ছি কোটচাঁদপুর উপজেলা বিতর্কিত আহ্বায়ক কমিটি সকল কার্যক্রম বন্ধ করে পুনরায় কমিটিকে ঢেলে সাজানো হোক।