আজ ৯ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৪শে নভেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

ম্যানসিটিতেই থাকছেন গার্দিওলা, ধাক্কা খেল মেসির বার্সায় থাকার সম্ভাবনা

প্রথমবার্তা, প্রতিবেদক:শোনা যাচ্ছিল, ম্যানচেস্টার সিটির কোচের দায়িত্ব ছেড়ে সাবেক ক্লাব বার্সেলোনাতে ফিরতে পারেন পেপ গার্দিওলা। কিন্তু সব সম্ভাবনায় জল ঢেলে দিল সিটি কর্তৃপক্ষ।

বৃহস্পতিবার ক্লাবের পক্ষ থেকে নিশ্চিত করা হয়েছে ২০২৩ পর্যন্ত ম্যানচেস্টার সিটিতেই থাকছেন গার্দিওলা। আরও দুই বছরের চুক্তির মেয়াদ বাড়ানোয় সম্মত হয়েছেন স্প্যানিশ এই কোচ।

নতুন চুক্তি করে খুশি গার্দিওলাও। তিনি বলেন, ‘আমি যখন ম্যানচেস্টার সিটিতে যোগ দেই তখন থেকে এই শহর, খেলোয়াড়, কর্মী, সমর্থক, ম্যানচেস্টারের জনগণ, চেয়ারম্যান এবং মালিক সবাই আমাকে স্বাগত জানিয়েছে।’

‘এরপর থেকে আমরা একসাথে দুর্দান্ত অর্জন পেয়েছি। গোল করেছি, ম্যাচ ও ট্রফি জিতেছি এবং আমরা সবাই সেই সাফল্যে গর্বিত। একজন ম্যানেজারের জন্য এই ধরনের সমর্থন পাওয়া সবচেয়ে সেরা দিক। আমি আমার চাকরিতে সম্ভাব্য যা সম্ভব করতে চাই।’

২০১৬ সালে ম্যানচেস্টার সিটির কোচ হয়ে আসেন গার্দিওলা। ক্লাবের হয়ে দুটি প্রিমিয়ার লিগসহ জিতেছেন মোট আটটি শিরোপা। এর মধ্যে সিটি ২০১৭-১৮ প্রিমিয়ার লিগ শিরোপা জেতে রেকর্ড ১০০ পয়েন্ট নিয়ে। পরের মৌসুমেও শিরোপা ধরে রাখে, সেবার ছিল ৯৮ পয়েন্ট।

তবে গার্দিওলার ক্যারিয়ারের সবচেয়ে সুখের সময় কেটেছে বার্সেলোনায়। ২০০৮ থেকে ২০১২ সাল পর্যন্ত বার্সাকে অনেক শিরোপা জিতিয়েছেন তিনি। শিষ্য হিসেবে পেয়েছিলেন লিওনেল মেসিকে। ন্যু ক্যাম্পে গার্দিওলা-মেসি জুটির সেই মেলবন্ধন আবারও হবে, এমন আশায় ছিলেন বার্সা সমর্থকরা।

বার্সার সভাপতি পদের দৌড়ে এগিয়ে থাকা ভিক্টর ফন্ট জানিয়েছিলেন, ন্যু ক্যাম্পে তিনি গার্দিওলাকে ফিরিয়ে আনতে চান। তবে নতুন চুক্তি করে স্প্যানিশ এই কোচ বললেন, ‘আমি এখানেই সুখী আছি। আর সুখে থাকতে পেরে আনন্দিত।’

গার্দিওলা ম্যানচেস্টার সিটিতে থেকে যাওয়ায় মেসিকে ধরে রাখার স্বপ্নটা বড় ধাক্কা খেল বার্সার। গত মৌসুমেই সিটিতে যোগ দিতে চেয়েছিলেন আর্জেন্টাইন খুদেরাজ। গার্দিওলা বার্সায় চলে আসলে হয়তো সিদ্ধান্ত বদলাতেন। কিন্তু এখন পরিস্থিতি যেমন, তাতে আগামী মৌসুমে ফ্রি ট্রান্সফারে ম্যানসিটিতে মেসির চলে যাওয়াটাকে কেবল সময়ের ব্যাপারই মনে হচ্ছে।